ঢাকা ০৪:৫২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৭এপিবিএন সিলেট এর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের উদ্ভোধন

মোহাম্মদ শাহজাহান আহমদ
  • আপডেট সময় : ০৭:০১:১৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৪ ২৯ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

গত ২৬ এপ্রিল শুক্রবার উদ্ভোধন হয়ে গেল ৭ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন সিলেটের নবনির্মিত জামে মসজিদ। জুম্মার দিক আগ-মুহুর্তে ১২.৩০ মিনিটে শুভ উদ্ভোধন করেন ব্যাটালিয়ন এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব খন্দকার ফরিদুল ইসলাম।

মসজিদের পেশ ইমাম এএসআই মাওলানা ইউনুস আকন্দের পরিচালনায় উদ্ভোধক অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব খন্দকার ফরিদুল ইসলাম বলেন, মসজিদ আল্লাহর ঘর, এই ঘরের নির্মাণকারী ও হেফাজতকারী আল্লাহর প্রিয় বান্দা। দুনিয়ার শান্তি এবং আখেরাতের কল্যাণের জন্য সকল মুসলমানকে মসজিদের পৃষ্ঠপোষকতা করতে হবে।

তিনি বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর উন্নয়ন কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, এ সরকার সারা দেশে ৫৯৯ টি মডেল মসজিদ নির্মান করেছে। যা একটি দেশের জন্য সত্যি বিস্ময়কর বিষয়।

তিনি সরকারের উন্নয়ন ধারাবাহিকতা রক্ষায় সকলকে এক যোগে কাজ করার আহবান জানান।

তিনি মাননীয় প্রধান মন্ত্রী, মাননীয় আইজিপি, ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত আইজিসহ মসজিদের কাজে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

আরো বক্তব্য রাখেন ৬ নং লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ত্বোয়াজিদুল হক তুহিন, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দয়াল উদ্দিন তালুকদার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার জনাব মোঃ আছাবুর রহমান, মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ রুহুল আমিন খান রিজভী, পুলিশ পরিদর্শক এসএম আল মামুন, দুলাল মিয়া, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ পরিদর্শক জনাব মোঃ মজির উদ্দিন ও জনাব মোঃ হুমায়ূন কবির, দি নিউ নেশনের সিলেট ব্যুরো প্রধান এস এ শফি, ফকিরোগাও জামে মসজিদের মোতাওয়াল্লী নিজাম উদ্দিন, সাবেক ইউপি সদস্য শহীদ রেজা, বিশিষ্ট সমাজসেবী ফয়ছল আহমদ, পাপড়ী রেষ্টুরেন্টের পরিচালক রাসেল আহমদ, দক্ষিণ সুরমা প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ শরীফ আহমদ, বিভিন্ন পদমর্যাদার অফিসার ও ফোর্সগনসহ এতিম ও মাদরাসার ছাত্র ও শিক্ষকগন, এলাকার বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ, মসজিদ নির্মানের ঠিকাদার, মেস্তরীসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।
জুমার নামাজের ইমামতি, মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন মসজিদের পেশ ইমাম এএসআই মাওলানা ইউনুস আকন্দ। দেশ ও জাতীর ক্যাল্যান কামনা করে সবার জন্য দোয়া করা হয়।

পরে অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব খন্দকার ফরিদুল ইসলাম এতিম ও মাদরাসার ছাত্র এবং অতিথিগনের সাথে মধ্যাহ্নভোজ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

৭এপিবিএন সিলেট এর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের উদ্ভোধন

আপডেট সময় : ০৭:০১:১৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ এপ্রিল ২০২৪
Spread the love

গত ২৬ এপ্রিল শুক্রবার উদ্ভোধন হয়ে গেল ৭ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন সিলেটের নবনির্মিত জামে মসজিদ। জুম্মার দিক আগ-মুহুর্তে ১২.৩০ মিনিটে শুভ উদ্ভোধন করেন ব্যাটালিয়ন এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব খন্দকার ফরিদুল ইসলাম।

মসজিদের পেশ ইমাম এএসআই মাওলানা ইউনুস আকন্দের পরিচালনায় উদ্ভোধক অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব খন্দকার ফরিদুল ইসলাম বলেন, মসজিদ আল্লাহর ঘর, এই ঘরের নির্মাণকারী ও হেফাজতকারী আল্লাহর প্রিয় বান্দা। দুনিয়ার শান্তি এবং আখেরাতের কল্যাণের জন্য সকল মুসলমানকে মসজিদের পৃষ্ঠপোষকতা করতে হবে।

তিনি বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর উন্নয়ন কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, এ সরকার সারা দেশে ৫৯৯ টি মডেল মসজিদ নির্মান করেছে। যা একটি দেশের জন্য সত্যি বিস্ময়কর বিষয়।

তিনি সরকারের উন্নয়ন ধারাবাহিকতা রক্ষায় সকলকে এক যোগে কাজ করার আহবান জানান।

তিনি মাননীয় প্রধান মন্ত্রী, মাননীয় আইজিপি, ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত আইজিসহ মসজিদের কাজে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

আরো বক্তব্য রাখেন ৬ নং লালাবাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ত্বোয়াজিদুল হক তুহিন, বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দয়াল উদ্দিন তালুকদার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার জনাব মোঃ আছাবুর রহমান, মেডিক্যাল অফিসার ডাঃ রুহুল আমিন খান রিজভী, পুলিশ পরিদর্শক এসএম আল মামুন, দুলাল মিয়া, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ পরিদর্শক জনাব মোঃ মজির উদ্দিন ও জনাব মোঃ হুমায়ূন কবির, দি নিউ নেশনের সিলেট ব্যুরো প্রধান এস এ শফি, ফকিরোগাও জামে মসজিদের মোতাওয়াল্লী নিজাম উদ্দিন, সাবেক ইউপি সদস্য শহীদ রেজা, বিশিষ্ট সমাজসেবী ফয়ছল আহমদ, পাপড়ী রেষ্টুরেন্টের পরিচালক রাসেল আহমদ, দক্ষিণ সুরমা প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ শরীফ আহমদ, বিভিন্ন পদমর্যাদার অফিসার ও ফোর্সগনসহ এতিম ও মাদরাসার ছাত্র ও শিক্ষকগন, এলাকার বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ, মসজিদ নির্মানের ঠিকাদার, মেস্তরীসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।
জুমার নামাজের ইমামতি, মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন মসজিদের পেশ ইমাম এএসআই মাওলানা ইউনুস আকন্দ। দেশ ও জাতীর ক্যাল্যান কামনা করে সবার জন্য দোয়া করা হয়।

পরে অতিরিক্ত ডিআইজি জনাব খন্দকার ফরিদুল ইসলাম এতিম ও মাদরাসার ছাত্র এবং অতিথিগনের সাথে মধ্যাহ্নভোজ করেন।