ঢাকা ০৯:১৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
জমকালো আয়োজনে শ্রীমঙ্গলে অনুষ্ঠিত হলো এসবিএ’র ব্যান্ড ফেস্টিভ্যাল-১০  আগামীকাল ২৫ এপ্রিল বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি সিলেট জেলা শাখার অভিষেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ঢাকাস্থ ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ দূতাবাসের পদক্ষেপে মিয়ানমারের কারাগার থেকে ফিরছেন ১৭৩ বাংলাদেশি সুনামগঞ্জে ৭ এপিবিএন এর অভিযানে ১টি চোরাই মোটরসাইকেলসহ একজন আটক সদর উপজেলা নির্বাচনে অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিকের নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন মেলান্দহে ট্রাক ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে সাত বৎসরের এক শিশু নিহত সিলেটে ডিবি পুলিশের অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ১০ জন জুয়ারী গ্রেফতার সিলেটে পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ ১ জন আটক লালাবাজার বিদ্যালয় ও কলেজের ‘রূপকল্প ২০৩০’ প্রণয়নে সুধীজনের মতবিনিময়

সিলেটে সর্বজনীন পেনশন স্কীম কার্যক্রম’র উদ্বোধন

আহমদ নাহিদ
  • আপডেট সময় : ০৭:৩৪:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪ ৭০ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

সিলেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসন ও বিআরটিএ, সিলেটে সর্বজনীন পেনশন স্কীম কার্যক্রম’র উদ্বোধন।

বৃহস্পতিবার বিআরটি ভবনে কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সিলেটের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শেখ রাসেল হাসান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, বর্তমান সরকার সকলকে সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় আনার চেষ্টা করছে। বিশেষ করে বয়স্কদের জন্য সরকার এই পেনশন স্কিম চালু করেছেন। নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী প্রবাস, প্রগতি, সুরক্ষা ও সমতা এই চার ক্যাটাগরিতে যে পেনশন স্কিম রয়েছে স্ব স্ব উদ্যোগে সকলকে রেজিস্ট্রেশন করার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, টেকসই ও সুসংগঠিত সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নে গত ১৭ আগস্ট ২০২৩ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বজনীন পেনশন স্কিম উদ্বোধন করেন। এরই ধারাবাহিকতায় সর্বজনীন পেনশন স্কিমে ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সি সকল বাংলাদেশি নাগরিক অংশ নিতে পারবেন। তবে বিশেষ বিবেচনায় পঞ্চাশোর্ধ নাগরিকগণ ও ১০ বছর নিরবচ্ছিন্ন চাঁদা প্রদান করলে আজীবন পেনশন সুবিধা পাবেন।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ইমরুল হাসান এর সভাপতিত্বে ও সহকারী কমিশনার নিশাত আনজুমের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক সুবর্ণা সরকার, সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) বিআরটিএ, মো: রিয়াজুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মোবারক হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এ. এস. এম কাশেম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (উন্নয়ণ ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) মো: হারুন-অর-রশিদ, রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর কাজী শামীম, এছাড়াও বিআরটিএ, সিলেট সার্কেলের মোটরযান পরিদর্শক ও সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তাসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, জেলা প্রশাসনের সহায়তায় বিআরটিএতে উদ্ভোধনকৃত এ বুথে সকল সেবা গ্রহীতাগণ অত্যান্ত সহজে রেজিস্ট্রেশন করে পেনশন কার্যক্রম শুরু করতে পারবেন। যার জন্য প্রতি কর্মদিবসে সকলা ৯ টা হতে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এ সেবা চলমান থাকবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

সিলেটে সর্বজনীন পেনশন স্কীম কার্যক্রম’র উদ্বোধন

আপডেট সময় : ০৭:৩৪:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪
Spread the love

সিলেটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অঙ্গীকার বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসন ও বিআরটিএ, সিলেটে সর্বজনীন পেনশন স্কীম কার্যক্রম’র উদ্বোধন।

বৃহস্পতিবার বিআরটি ভবনে কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সিলেটের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শেখ রাসেল হাসান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক বলেন, বর্তমান সরকার সকলকে সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় আনার চেষ্টা করছে। বিশেষ করে বয়স্কদের জন্য সরকার এই পেনশন স্কিম চালু করেছেন। নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী প্রবাস, প্রগতি, সুরক্ষা ও সমতা এই চার ক্যাটাগরিতে যে পেনশন স্কিম রয়েছে স্ব স্ব উদ্যোগে সকলকে রেজিস্ট্রেশন করার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, টেকসই ও সুসংগঠিত সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়নে গত ১৭ আগস্ট ২০২৩ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বজনীন পেনশন স্কিম উদ্বোধন করেন। এরই ধারাবাহিকতায় সর্বজনীন পেনশন স্কিমে ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সি সকল বাংলাদেশি নাগরিক অংশ নিতে পারবেন। তবে বিশেষ বিবেচনায় পঞ্চাশোর্ধ নাগরিকগণ ও ১০ বছর নিরবচ্ছিন্ন চাঁদা প্রদান করলে আজীবন পেনশন সুবিধা পাবেন।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ইমরুল হাসান এর সভাপতিত্বে ও সহকারী কমিশনার নিশাত আনজুমের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক সুবর্ণা সরকার, সহকারী পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং) বিআরটিএ, মো: রিয়াজুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মোবারক হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এ. এস. এম কাশেম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (উন্নয়ণ ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) মো: হারুন-অর-রশিদ, রেভিনিউ ডেপুটি কালেক্টর কাজী শামীম, এছাড়াও বিআরটিএ, সিলেট সার্কেলের মোটরযান পরিদর্শক ও সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তাসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, জেলা প্রশাসনের সহায়তায় বিআরটিএতে উদ্ভোধনকৃত এ বুথে সকল সেবা গ্রহীতাগণ অত্যান্ত সহজে রেজিস্ট্রেশন করে পেনশন কার্যক্রম শুরু করতে পারবেন। যার জন্য প্রতি কর্মদিবসে সকলা ৯ টা হতে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত এ সেবা চলমান থাকবে।