ঢাকা ১২:১৬ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
ত্রাণের অভাব হবে না, সাহস নিয়ে দূর্যোগ মোকাবেলা করুন: দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মহিবুল ইসলাম সিলেটে মুক্তিপণ না পেয়ে ছাদ থেকে ফেলে এক যুবককে হত্যার অভিযোগ ডাঃ জোবাইদা রহমানের জন্মদিনে সিলেটে বন্যার্তদের মাঝে খাবার বিতরণ সিলেটের বন্যা প্রতিরোধে স্থায়ী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে: মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী পাওয়ার নিউজ বিডি’র উপদেষ্টা যুক্তরাজ্য প্রবাসী মো: আব্দুল গনি’র ঈদ শুভেচ্ছা বিএনপিতে রদবদল; সিলেট বিভাগে দায়িত্ব পেলেন জি কে গৌছ ও মিফতাহ্ সিদ্দিকী বাবার বিচার চেয়ে ডরিনের পাশে থাকা সাইদুল করিম মিন্টুই এমপি আনার হত্যায় গ্রেফতার ! সিলেটে আর্মড পুলিশের অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেফতার ‘ছাদ থেকে পড়ে’ ভাইরাল সেই শিশু হজযাত্রীর মৃত্যু ! ১ লাখ ১ টাকা কাবিনে শ্রীলঙ্কান তরুণীকে বিয়ে করলেন দুবাই প্রবাসী ফটিকছড়ির মোরশেদ

সিলেটের চামেলিবাগে টিলা ধসে ৩ জনের মৃত্যু: ৪ জনকে জীবিত উদ্ধার

তারেক আহমদ খান
  • আপডেট সময় : ০৮:০০:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪ ২০ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সিলেটে অতি বৃষ্টিতে টিলা ধসে চাপাপড়া একই পরিবারের তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ সোমবার বেলা দেড়টার দিকে ওই তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করেন সেনাবাহিনী, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় প্রশাসনের উদ্ধারকারীরা। 

নিহত ব্যক্তিরা হলেন আগা করিম উদ্দিন (৩০) তাঁর স্ত্রী সাম্মি রুজি বেগম (২৫) ও তাঁদের দুই বছরের শিশু তানিম। 

আজ ভোরে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডের ইসলামপুরের মেজর টিলার চামেলীবাগ আবাসিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. জাহাঙ্গীর আলম।

তিনি জানান, সোমবার সকাল ৬টার দিকে টিলা ধসে পড়ে। এখানে দুটি পরিবারের সাতজন মাটিচাপা পড়ে। চারজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। 

সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনূর রশীদ চৌধুরী জানান, পাহাড়ধসের খবর পেয়ে সকাল ৭টার দিকে আমাদের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। ভারী বৃষ্টির কারণে টিলার মাটি ধসে একটি আধা পাকা ঘরের ওপরে পড়েছে। ঘরটি টিলার নিচেই ছিল। এতে ওই ঘরের সাতজন আটকা পড়ে। এর মধ্যে চারজনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও তিনজনের মরদেহ পাওয়া যায়।

এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। সকাল ১০টায় তিনি ঘটনাস্থলে যান। পরিদর্শনের সময় তিনি বলেন, ‘ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক।

দুপুর ১ টার দিকে সিসিকের সাবেক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এছাড়াও সিলেটের জেলা প্রশাসক সহ প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

সেনাবাহিনীর একটি চৌকস দল, ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট, পুলিশ ও সিটি করপোরেশনের উদ্ধারকর্মী উদ্ধার তৎপরতায় কাজ করেছেন। সিলেটে বৃষ্টিপাত বেড়েছে। বর্ষাকালে টিলাধসের ঘটনা প্রায়ই ঘটে।

এই সময় টিলার নিচে বা ওপরে কাউকে না থাকার অনুরোধ জানিয়ে মেয়র বলেন, অপরিকল্পিত টিলা কাটার কারণে ধসের ঘটনা ঘটছে। তাই টিলা কাটা এবং টিলার আশপাশে বসতি না গড়তে সবাইকে অনুরোধ জানাচ্ছি। এ বিষয়ে নগর ভবনে জরুরি সভার আহ্বান করেছি এবং জনসচেতনতা বাড়াতে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাগুলোতে মাইকিং করবে সিলেট সিটি করপোরেশন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

সিলেটের চামেলিবাগে টিলা ধসে ৩ জনের মৃত্যু: ৪ জনকে জীবিত উদ্ধার

আপডেট সময় : ০৮:০০:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ১০ জুন ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সিলেটে অতি বৃষ্টিতে টিলা ধসে চাপাপড়া একই পরিবারের তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ সোমবার বেলা দেড়টার দিকে ওই তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করেন সেনাবাহিনী, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় প্রশাসনের উদ্ধারকারীরা। 

নিহত ব্যক্তিরা হলেন আগা করিম উদ্দিন (৩০) তাঁর স্ত্রী সাম্মি রুজি বেগম (২৫) ও তাঁদের দুই বছরের শিশু তানিম। 

আজ ভোরে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ৩৫ নম্বর ওয়ার্ডের ইসলামপুরের মেজর টিলার চামেলীবাগ আবাসিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. জাহাঙ্গীর আলম।

তিনি জানান, সোমবার সকাল ৬টার দিকে টিলা ধসে পড়ে। এখানে দুটি পরিবারের সাতজন মাটিচাপা পড়ে। চারজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়। 

সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হারুনূর রশীদ চৌধুরী জানান, পাহাড়ধসের খবর পেয়ে সকাল ৭টার দিকে আমাদের একটি টিম ঘটনাস্থলে যায়। ভারী বৃষ্টির কারণে টিলার মাটি ধসে একটি আধা পাকা ঘরের ওপরে পড়েছে। ঘরটি টিলার নিচেই ছিল। এতে ওই ঘরের সাতজন আটকা পড়ে। এর মধ্যে চারজনকে জীবিত উদ্ধার করা গেলেও তিনজনের মরদেহ পাওয়া যায়।

এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী। সকাল ১০টায় তিনি ঘটনাস্থলে যান। পরিদর্শনের সময় তিনি বলেন, ‘ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক।

দুপুর ১ টার দিকে সিসিকের সাবেক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এছাড়াও সিলেটের জেলা প্রশাসক সহ প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

সেনাবাহিনীর একটি চৌকস দল, ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট, পুলিশ ও সিটি করপোরেশনের উদ্ধারকর্মী উদ্ধার তৎপরতায় কাজ করেছেন। সিলেটে বৃষ্টিপাত বেড়েছে। বর্ষাকালে টিলাধসের ঘটনা প্রায়ই ঘটে।

এই সময় টিলার নিচে বা ওপরে কাউকে না থাকার অনুরোধ জানিয়ে মেয়র বলেন, অপরিকল্পিত টিলা কাটার কারণে ধসের ঘটনা ঘটছে। তাই টিলা কাটা এবং টিলার আশপাশে বসতি না গড়তে সবাইকে অনুরোধ জানাচ্ছি। এ বিষয়ে নগর ভবনে জরুরি সভার আহ্বান করেছি এবং জনসচেতনতা বাড়াতে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাগুলোতে মাইকিং করবে সিলেট সিটি করপোরেশন।