ঢাকা ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মানিকগঞ্জে মধ্যরাতে প্রেমিকের সঙ্গে একান্তে পুত্রবধূ, দেখে ফেলায় শাশুড়ীকে খুন !

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ০১:০৫:১৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০২৪ ৬৩ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

মানিকগঞ্জে মধ্যরাতে প্রেমিকের সঙ্গে দেখে ফেলায় টর্চ লাইট দিয়ে শাশুড়ি তোহরা বেগমকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পুত্রবধূ আইরিন আক্তারের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) রাত আনুমানিক ২টার দিকে সিংগাইর উপজেলার জামশা ইউনিয়নের মাটিকাটা ছোট বরনডি এলাকার মো. সোনামিয়ার বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। নিহত তোহরা বেগম এই গ্রামের মো. সোনামিয়ার স্ত্রী। আইরিন আক্তার প্রবাসী রাসেল বিশ্বাসের স্ত্রী।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিংগাইর থানার ওসি মো. জিয়ারুল ইসলাম। স্থানীয়রা জানান, এবছর এইচএসসি পাস করেছেন আইরিন আক্তার। তিনি যে কলেজে পড়ালেখা করেন, সেই কলেজের এক শিক্ষকের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। মঙ্গলবার রাতে আইরিনের শ্বশুরবাড়িতে আসেন ওই শিক্ষক। ঘটনাটি দেখে ফেলেন আইরিনের শাশুড়ি। সেখানে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে টর্চ লাইট দিয়ে শাশুড়িকে আঘাত করেন পুত্রবধূ। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান শাশুড়ি তোহরা। এ সময় আহত হন শ্বশুর সোনামিয়া।

স্থানীয়রা আরো জানান, মো. সোনামিয়ার ছেলে রাসেল বিশ্বাস প্রবাসী। তিনি মালোশিয়ায় থাকেন। ছুটি নিয়ে চারমাস আগে বাড়িতে আসেন। প্রায় তিন মাস আগে পার্শ্ববর্তী হরিরামপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের আলীরচর গ্রামের সিদ্দিক মোল্লার মেয়ে আইরিন আক্তারকে বিয়ে করেন তিনি। এই কয়েক দিনের সংসারে তাদের প্রায়ই কথা কাটাকাটি হতো। সাত দিন আগে আবার প্রবাসে চলে যান রাসেল।

ওসি জিয়ারুল ইসলাম বলেন, রাতেই ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পুত্রবধূকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মানিকগঞ্জে মধ্যরাতে প্রেমিকের সঙ্গে একান্তে পুত্রবধূ, দেখে ফেলায় শাশুড়ীকে খুন !

আপডেট সময় : ০১:০৫:১৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ এপ্রিল ২০২৪
Spread the love

মানিকগঞ্জে মধ্যরাতে প্রেমিকের সঙ্গে দেখে ফেলায় টর্চ লাইট দিয়ে শাশুড়ি তোহরা বেগমকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পুত্রবধূ আইরিন আক্তারের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) রাত আনুমানিক ২টার দিকে সিংগাইর উপজেলার জামশা ইউনিয়নের মাটিকাটা ছোট বরনডি এলাকার মো. সোনামিয়ার বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। নিহত তোহরা বেগম এই গ্রামের মো. সোনামিয়ার স্ত্রী। আইরিন আক্তার প্রবাসী রাসেল বিশ্বাসের স্ত্রী।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিংগাইর থানার ওসি মো. জিয়ারুল ইসলাম। স্থানীয়রা জানান, এবছর এইচএসসি পাস করেছেন আইরিন আক্তার। তিনি যে কলেজে পড়ালেখা করেন, সেই কলেজের এক শিক্ষকের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। মঙ্গলবার রাতে আইরিনের শ্বশুরবাড়িতে আসেন ওই শিক্ষক। ঘটনাটি দেখে ফেলেন আইরিনের শাশুড়ি। সেখানে ধস্তাধস্তির একপর্যায়ে টর্চ লাইট দিয়ে শাশুড়িকে আঘাত করেন পুত্রবধূ। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান শাশুড়ি তোহরা। এ সময় আহত হন শ্বশুর সোনামিয়া।

স্থানীয়রা আরো জানান, মো. সোনামিয়ার ছেলে রাসেল বিশ্বাস প্রবাসী। তিনি মালোশিয়ায় থাকেন। ছুটি নিয়ে চারমাস আগে বাড়িতে আসেন। প্রায় তিন মাস আগে পার্শ্ববর্তী হরিরামপুর উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের আলীরচর গ্রামের সিদ্দিক মোল্লার মেয়ে আইরিন আক্তারকে বিয়ে করেন তিনি। এই কয়েক দিনের সংসারে তাদের প্রায়ই কথা কাটাকাটি হতো। সাত দিন আগে আবার প্রবাসে চলে যান রাসেল।

ওসি জিয়ারুল ইসলাম বলেন, রাতেই ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলার ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পুত্রবধূকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।