ঢাকা ১০:৩৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
জমকালো আয়োজনে শ্রীমঙ্গলে অনুষ্ঠিত হলো এসবিএ’র ব্যান্ড ফেস্টিভ্যাল-১০  আগামীকাল ২৫ এপ্রিল বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি সিলেট জেলা শাখার অভিষেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ঢাকাস্থ ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ দূতাবাসের পদক্ষেপে মিয়ানমারের কারাগার থেকে ফিরছেন ১৭৩ বাংলাদেশি সুনামগঞ্জে ৭ এপিবিএন এর অভিযানে ১টি চোরাই মোটরসাইকেলসহ একজন আটক সদর উপজেলা নির্বাচনে অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিকের নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন মেলান্দহে ট্রাক ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে সাত বৎসরের এক শিশু নিহত সিলেটে ডিবি পুলিশের অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ১০ জন জুয়ারী গ্রেফতার সিলেটে পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ ১ জন আটক লালাবাজার বিদ্যালয় ও কলেজের ‘রূপকল্প ২০৩০’ প্রণয়নে সুধীজনের মতবিনিময়

বিবাহবার্ষিকীতে উপহার না পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে স্বামীকে ছুরিকাঘাত!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
  • আপডেট সময় : ০৯:২৫:৩৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৮ মার্চ ২০২৪ ৭৬ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে স্বামী তাকে উপহার দেবেন, কিন্তু উপহার দেননি স্বামী। এ কারণে ভীষণ ক্ষুব্ধ হয়ে স্ত্রী ঘুমন্ত স্বামীকে ছুরিকাঘাত করে বসেন। যদিও ভাগ্য সহায় থাকায় এ যাত্রায় প্রাণে বেঁচে গেছেন স্বামী। এ ঘটনায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগে স্ত্রীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন স্বামী।

ভারতের বেঙ্গালুরুতে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি এ ঘটনা ঘটে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ছুরিকাঘাতে আহত ৩৭ বছর বয়সী কিরণ (ছদ্মনাম) একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তার স্ত্রী সন্ধ্যার (ছদ্মনাম) বয়স ৩৫ বছর, তিনি গৃহিণী।

পুলিশ জানায়, কিরণ রাতে ঘুমাচ্ছিলেন। হঠাৎ রান্নার কাজে ব্যবহৃত একটি ছুরি দিয়ে তাকে আঘাত করেন সন্ধ্যা। আঘাতটি কিরণের হাতে লাগে। স্ত্রীর আকস্মিক ছুরিকাঘাতে কিরণ হতচকিত হয়ে পড়েন তিনি। আবার ছুরিকাঘাত করার আগেই তিনি ধাক্কা মেরে স্ত্রীকে সরিয়ে দেন। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

পুলিশের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, এ ঘটনায় সন্ধ্যার বিরুদ্ধে তার স্বামী ১ মার্চ থানায় মামলা করেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, এটি একটি পারিবারিক বিষয়। আমরা স্বামী-স্ত্রীকে নিজেদের মধ্যে আলোচনার জন্য সময় দিয়েছি। আলোচনা শেষে তাদের আবার পুলিশের কাছে আসতে বলেছি।

তিনি জানা, এর আগে কোনো বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে উপহার দেওয়া মিস করেননি কিরণ। তবে দাদার মৃত্যুর কারণে এবারের বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে কোনো উপহার কিনে দিতে পারেননি তিনি। আর উপহার না পেয়ে ক্ষুব্ধ হন সন্ধ্যা।

কিরণ পুলিশকে জানিয়েছে, ব্যক্তিগত কিছু বিষয় নিয়ে আগে থেকেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন তার স্ত্রী। তিনি স্ত্রীকে কাউন্সেলিং করানোর কথাও ভেবেছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

বিবাহবার্ষিকীতে উপহার না পেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে স্বামীকে ছুরিকাঘাত!

আপডেট সময় : ০৯:২৫:৩৮ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ৮ মার্চ ২০২৪
Spread the love

বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে স্বামী তাকে উপহার দেবেন, কিন্তু উপহার দেননি স্বামী। এ কারণে ভীষণ ক্ষুব্ধ হয়ে স্ত্রী ঘুমন্ত স্বামীকে ছুরিকাঘাত করে বসেন। যদিও ভাগ্য সহায় থাকায় এ যাত্রায় প্রাণে বেঁচে গেছেন স্বামী। এ ঘটনায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগে স্ত্রীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন স্বামী।

ভারতের বেঙ্গালুরুতে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি এ ঘটনা ঘটে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ছুরিকাঘাতে আহত ৩৭ বছর বয়সী কিরণ (ছদ্মনাম) একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তার স্ত্রী সন্ধ্যার (ছদ্মনাম) বয়স ৩৫ বছর, তিনি গৃহিণী।

পুলিশ জানায়, কিরণ রাতে ঘুমাচ্ছিলেন। হঠাৎ রান্নার কাজে ব্যবহৃত একটি ছুরি দিয়ে তাকে আঘাত করেন সন্ধ্যা। আঘাতটি কিরণের হাতে লাগে। স্ত্রীর আকস্মিক ছুরিকাঘাতে কিরণ হতচকিত হয়ে পড়েন তিনি। আবার ছুরিকাঘাত করার আগেই তিনি ধাক্কা মেরে স্ত্রীকে সরিয়ে দেন। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

পুলিশের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, এ ঘটনায় সন্ধ্যার বিরুদ্ধে তার স্বামী ১ মার্চ থানায় মামলা করেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, এটি একটি পারিবারিক বিষয়। আমরা স্বামী-স্ত্রীকে নিজেদের মধ্যে আলোচনার জন্য সময় দিয়েছি। আলোচনা শেষে তাদের আবার পুলিশের কাছে আসতে বলেছি।

তিনি জানা, এর আগে কোনো বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে উপহার দেওয়া মিস করেননি কিরণ। তবে দাদার মৃত্যুর কারণে এবারের বিবাহবার্ষিকীতে স্ত্রীকে কোনো উপহার কিনে দিতে পারেননি তিনি। আর উপহার না পেয়ে ক্ষুব্ধ হন সন্ধ্যা।

কিরণ পুলিশকে জানিয়েছে, ব্যক্তিগত কিছু বিষয় নিয়ে আগে থেকেই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন তার স্ত্রী। তিনি স্ত্রীকে কাউন্সেলিং করানোর কথাও ভেবেছিলেন।