ঢাকা ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রহসনের উপজেলা নির্বাচন জনগণ প্রত্যাখ্যান করছে : কাইয়ুম চৌধুরী

আহমদ নাহিদ
  • আপডেট সময় : ০৩:২২:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪ ৩৪ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেছেন, সরকার সবকিছুর দায় জনগের উপর চাপিয়ে দিতে চায়। জনগন ভোটে যায় নি, সেই দায়ও জনগনের উপর দিচ্ছে, তারা বলছে ধানকাটার মৌসুম থাকায় মানুষ ভোটে যাচ্ছে না। বাস্তবতা হচ্ছে এই ফ্যাসিস্ট সরকার ও তাদের আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশনের উপর জনগনের কোন আস্তা নেই, যা বিগত সংসদ নির্বাচনে প্রমাণিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপের ভোটও মানুষ বর্জন করেছে। আগামীতেও কোন ভোটে জনগন অংশ নিবে না। দেশের গণতন্ত্র, ভোটাধিকার ও বাকস্বাধীনতা ফিরে না আসা পর্যন্ত কোন মানুষ ভোটে যাবে না। তাই আগামীদিনেও উপজেলা নির্বাচনের নামে ডামি ভোটে না যাওয়ার জন্য দলমত নির্বিশেষে সবার প্রতি বিএনপি আহবান জানিয়েছে।

বুধবার বিকেলে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার টুকেরবাজার এলাকায় উপজেলা নির্বাচন বর্জন করতে লিফলেট বিতরণ ও গণসংযোগ শেষে পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নিঃশর্ত মুক্ত না করে এবং দেশনায়ক তারেক রহমানের দেশে ফেরার প্রতিবন্ধকতা দুর না হওয়া পর্যন্ত আওয়ামীলীগের অধিনে দেশে কোন সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না। তাই অবিলম্বে একটি নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে জাতীয় নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যতায় দেশ অস্থিত্ব সংকটে পড়বে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আলী আকবরের সঞ্চালনায় এ পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- ফরহাদ খন্দকার, বাদশা মিয়া, ফখরুল ইসলাম, আবুল কাশেম, মংলা মিয়া, আব্দুস সালাম, সেবুল মিয়া, রমজান মিয়া, সাজ্জাদ হোসেন দুদু, গিয়াস উদ্দিন, আবু হেলাল, সাদ্দাম হোসেন, মামুন আহমদ, আরমান আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন, ইব্রাহিম আলী, জাফর আহমদ, আরমান আলী, অমিত হোসেন, আবুল বাসার, ইকবাল হোসেন, আশরাফ আলী, আল আমিন সারোয়ার, সজিব আহমদ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

প্রহসনের উপজেলা নির্বাচন জনগণ প্রত্যাখ্যান করছে : কাইয়ুম চৌধুরী

আপডেট সময় : ০৩:২২:০৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ মে ২০২৪
Spread the love

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেছেন, সরকার সবকিছুর দায় জনগের উপর চাপিয়ে দিতে চায়। জনগন ভোটে যায় নি, সেই দায়ও জনগনের উপর দিচ্ছে, তারা বলছে ধানকাটার মৌসুম থাকায় মানুষ ভোটে যাচ্ছে না। বাস্তবতা হচ্ছে এই ফ্যাসিস্ট সরকার ও তাদের আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশনের উপর জনগনের কোন আস্তা নেই, যা বিগত সংসদ নির্বাচনে প্রমাণিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাচনের প্রথম ধাপের ভোটও মানুষ বর্জন করেছে। আগামীতেও কোন ভোটে জনগন অংশ নিবে না। দেশের গণতন্ত্র, ভোটাধিকার ও বাকস্বাধীনতা ফিরে না আসা পর্যন্ত কোন মানুষ ভোটে যাবে না। তাই আগামীদিনেও উপজেলা নির্বাচনের নামে ডামি ভোটে না যাওয়ার জন্য দলমত নির্বিশেষে সবার প্রতি বিএনপি আহবান জানিয়েছে।

বুধবার বিকেলে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার টুকেরবাজার এলাকায় উপজেলা নির্বাচন বর্জন করতে লিফলেট বিতরণ ও গণসংযোগ শেষে পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নিঃশর্ত মুক্ত না করে এবং দেশনায়ক তারেক রহমানের দেশে ফেরার প্রতিবন্ধকতা দুর না হওয়া পর্যন্ত আওয়ামীলীগের অধিনে দেশে কোন সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না। তাই অবিলম্বে একটি নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে জাতীয় নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যতায় দেশ অস্থিত্ব সংকটে পড়বে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি শাহাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আলী আকবরের সঞ্চালনায় এ পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- ফরহাদ খন্দকার, বাদশা মিয়া, ফখরুল ইসলাম, আবুল কাশেম, মংলা মিয়া, আব্দুস সালাম, সেবুল মিয়া, রমজান মিয়া, সাজ্জাদ হোসেন দুদু, গিয়াস উদ্দিন, আবু হেলাল, সাদ্দাম হোসেন, মামুন আহমদ, আরমান আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন, ইব্রাহিম আলী, জাফর আহমদ, আরমান আলী, অমিত হোসেন, আবুল বাসার, ইকবাল হোসেন, আশরাফ আলী, আল আমিন সারোয়ার, সজিব আহমদ।