ঢাকা ০৪:৪৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সর্বজনীন পেনশন স্কিম সহায়তা কেন্দ্রের উদ্বোধন

প্রধানমন্ত্রী দেশকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত করেছেন – আবু আহমদ ছিদ্দীকী এনডিসি

আহমদ নাহিদ
  • আপডেট সময় : ১১:৩৭:৪০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪ ১৪ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকী এনডিসি বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকারের অর্থ ও আয় বাড়ছে। রাষ্ট্র ধনী হচ্ছে। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চাচ্ছেন এদেশের নাগরিকরাও এর অংশ যেন বুঝে পান। আর সেই অংশ পেতে হলে সবাইকে সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় আসতে হবে। বঙ্গবন্ধু এদেশকে স্বাধীন করার জন্য যে সাহস দেখিয়েছিলেন, সেই সাহসিকতার কারণেই এ দেশ স্বাধীন হয়েছিল। তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একক নেতৃত্বে ও অসীম সাহসিকতার কারণে তলাবিহীন ঝুড়ি খ্যাত এ দেশকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত করেছেন।

তিনি মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে সিলেট জেলা প্রশাসন এবং বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত সর্বজনীন পেনশন স্কিম সহায়তা কেন্দ্র উদ্বোধন ও অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

এসময় তিনি উপস্থিত সেবাগ্রহীতাদের উদ্দেশে আরও বলেন, আবারও প্রধানমন্ত্রী সাহসী পদক্ষেপ নিয়ে সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করেছেন। যা ভারত ও পাকিস্তানের মতো দেশও করতে পারেনি। সরকারের আসল চরিত্র হলো দেশ ও জাতিকে ভালো রাখা। সরকার সবসময় জনগণের কল্যাণ চায়। সরকার চাচ্ছে এদেশের জনগণকে ভালো রাখার জন্য। তাই প্রধানমন্ত্রী সর্বজনীন পেনশন স্কিমের যে সুযোগ করে দিয়েছেন তা আপনারা গ্রহণ করুন।

তিনি বলেন, যতদ্রুত পেনশন স্কিমের আওতায় আসবেন, ততদ্রুত আপনার পেনশনের পরিমাণ বাড়বে। আমাদের বিশ্বাস প্রবাসী অধ্যুষিত এই সিলেট অঞ্চলের মানুষজন অচিরেই এ সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় আসবেন।

সিলেট বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের উপ-পরিচালক মহের উদ্দিন সেখ এর সঞ্চালনায় সভাপতির বক্তব্যে সিলেটের জেলা প্রশাসক শেখ রাসেল হাসান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষকে সুন্দর ও উন্নত জীবন দেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। যারই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী গতবছর সর্বজনীন পেনশন স্কিমের উদ্বোধন করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী এদেশের মানুষকে সুন্দর ও উন্নত জীবন দেওয়ার চেষ্টা করছেন। দেশের নির্দিষ্ট বয়সের মানুষ ৬০ বছর বয়সের পর যেন ভাতা পেতে পারেন সেই লক্ষ্যেই কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, নাগরিকদের বৃদ্ধ বয়সের সামাজিক নিরাপত্তার জন্য এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার। একটা সময় মানুষজনদের যেন কারো কাছে হাত পাততে না হয়। তাদের জীবনে যেন দারিদ্রতা দেখা না দেয়। তাই প্রধানমন্ত্রী সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় দেশের সকল মানুষকে নিয়ে আসার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. শাহাদাত হোসেন, মো. সাহেব আলী প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

সর্বজনীন পেনশন স্কিম সহায়তা কেন্দ্রের উদ্বোধন

প্রধানমন্ত্রী দেশকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত করেছেন – আবু আহমদ ছিদ্দীকী এনডিসি

আপডেট সময় : ১১:৩৭:৪০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪
Spread the love

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকী এনডিসি বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকারের অর্থ ও আয় বাড়ছে। রাষ্ট্র ধনী হচ্ছে। তাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী চাচ্ছেন এদেশের নাগরিকরাও এর অংশ যেন বুঝে পান। আর সেই অংশ পেতে হলে সবাইকে সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় আসতে হবে। বঙ্গবন্ধু এদেশকে স্বাধীন করার জন্য যে সাহস দেখিয়েছিলেন, সেই সাহসিকতার কারণেই এ দেশ স্বাধীন হয়েছিল। তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একক নেতৃত্বে ও অসীম সাহসিকতার কারণে তলাবিহীন ঝুড়ি খ্যাত এ দেশকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তরিত করেছেন।

তিনি মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) দুপুরে সিলেট জেলা প্রশাসন এবং বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত সর্বজনীন পেনশন স্কিম সহায়তা কেন্দ্র উদ্বোধন ও অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

এসময় তিনি উপস্থিত সেবাগ্রহীতাদের উদ্দেশে আরও বলেন, আবারও প্রধানমন্ত্রী সাহসী পদক্ষেপ নিয়ে সর্বজনীন পেনশন স্কিম চালু করেছেন। যা ভারত ও পাকিস্তানের মতো দেশও করতে পারেনি। সরকারের আসল চরিত্র হলো দেশ ও জাতিকে ভালো রাখা। সরকার সবসময় জনগণের কল্যাণ চায়। সরকার চাচ্ছে এদেশের জনগণকে ভালো রাখার জন্য। তাই প্রধানমন্ত্রী সর্বজনীন পেনশন স্কিমের যে সুযোগ করে দিয়েছেন তা আপনারা গ্রহণ করুন।

তিনি বলেন, যতদ্রুত পেনশন স্কিমের আওতায় আসবেন, ততদ্রুত আপনার পেনশনের পরিমাণ বাড়বে। আমাদের বিশ্বাস প্রবাসী অধ্যুষিত এই সিলেট অঞ্চলের মানুষজন অচিরেই এ সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় আসবেন।

সিলেট বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের উপ-পরিচালক মহের উদ্দিন সেখ এর সঞ্চালনায় সভাপতির বক্তব্যে সিলেটের জেলা প্রশাসক শেখ রাসেল হাসান বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষকে সুন্দর ও উন্নত জীবন দেওয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। যারই ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী গতবছর সর্বজনীন পেনশন স্কিমের উদ্বোধন করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী এদেশের মানুষকে সুন্দর ও উন্নত জীবন দেওয়ার চেষ্টা করছেন। দেশের নির্দিষ্ট বয়সের মানুষ ৬০ বছর বয়সের পর যেন ভাতা পেতে পারেন সেই লক্ষ্যেই কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, নাগরিকদের বৃদ্ধ বয়সের সামাজিক নিরাপত্তার জন্য এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার। একটা সময় মানুষজনদের যেন কারো কাছে হাত পাততে না হয়। তাদের জীবনে যেন দারিদ্রতা দেখা না দেয়। তাই প্রধানমন্ত্রী সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় দেশের সকল মানুষকে নিয়ে আসার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. শাহাদাত হোসেন, মো. সাহেব আলী প্রমুখ।