ঢাকা ১১:১৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
যুক্তরাষ্ট্রের উপ-সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বিএনপি প্রতিনিধি দলের বৈঠক গার্ল গাইড্স এসোসিয়েশন সিলেট অঞ্চলের উদ্যোগে বিশ্ব চিন্তা দিবস পালন শুধু রোহিঙ্গা না, পুরো বার্মা একটা জটিল জিনিস ডয়চে ভেলের এক অনুষ্ঠানে ড. ইউনূস ছাতকে সুবিধা বঞ্চিত একজনকে রোটারী ক্লাব অব সিলেট মিডটাউনের ঘর হস্থান্তর মুরারিচাঁদ কলেজের ইতিহাস ও ঐতিহ্য অনুষঙ্গ এবং প্রাসঙ্গিক ভাবনা শীর্ষক মুক্ত আলোচনা জাতিসংঘের পূর্ণ সদস্য হতে চায় ফিলিস্তিন; ফিলিস্তিন প্রতিনিধি দলের প্রধান রিয়াদ মনসুর সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত ভারতের শিলচরের সাহিত্য-সংস্কৃতি কর্মীদের সিলেটে সৌজন্য সাক্ষাৎ ছড়াকার সুফিয়ান আহমদ চৌধুরী ছড়াশিল্পের অনন্য এক দিকপাল: প্রফেসর হারুনুর রশীদ ডাক্তারের পরামর্শে চার মাস কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন না বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী’র খাগড়াছড়িতে নারী উপকারভোগীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ

খাগড়াছড়ি থেকে...
  • আপডেট সময় : ০২:২৬:৪০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪ ৬৪ বার পড়া হয়েছে

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা’র খাগড়াছড়িতে নারী উপকারভোগীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ

খাগড়াছড়ি থেকে…

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেছেন, প্রযুক্তি বাংলাদেশের নারী-পুরুষ সকলের আর্থিক স্বচ্ছলতা এনে দিয়েছে। পার্বত্য অঞ্চলের যেসব নারী বাইরে কাজ করতে গিয়ে পরিবারের বাধার মুখে পড়েন, তাঁরা প্রযুক্তির মাধ্যমে এখন ঘরে বসেই আয় করতে পারছেন।

পার্বত্য বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তির সর্বোত্তম নিরাপদ ব্যবহার নিশ্চিত করে নারীদের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধিসহ আর্থকর্মসংস্থানের প্লাটফর্ম তৈরি করে দিয়েছে সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগ। এজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়সহ সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান।

আজ শনিবার খাগড়াছড়ি জেলার অফিসার্স ক্লাবের অডিটোরিয়ামে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের `হার পাওয়ার প্রজেক্ট’র প্রযুক্তির সহায়তায় নারীর ক্ষমতায়ন প্রকল্পের মাধ্যমে খাগড়াছড়িতে ৭৫ জন নারী উপকারভোগীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে পাহাড়ে শান্তি, সম্প্রীতি-সহাবস্থান নিশ্চিত করতে সকল নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করার আহ্বান জানান।

খাগড়াছড়ি তথ্য ও যোগাযোগ অধিদপ্তরের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ই-কমার্স প্রফেসনাল ক্যাগাগরিতে ৩ উপজেলার ২৫ জন করে মোট ৭৫ জন নারীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো. সহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) রুমানা আক্তার, সদর উপজেলার ইউএনও নাঈমা ইসলাম, মাটিরাঙ্গার ইউএনও ডেজী চক্রবর্তী ও দীঘিনালার ইউএনও মো. মামুনুর রশীদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন হার পাওয়ার উপ-প্রকল্প পরিচালক নিলুফা ইয়াসমিন।প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে থেকে বক্তব্য দেন খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার উপকাভোগী তেজশ্রী চাকমা।

উল্লেখ্য, তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের ব্যবস্থাপনায় দেশের ৪৪টি জেলার মধ্যে মোট ১৩০টি উপজেলায় তথ্য প্রযুক্তিতে নারীদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে চারটি ক্যাটাগরিতে মোট ২৫,১২৫ জন নারীকে ০৫ (পাঁচ) মাসব্যাপী প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা, মাটিরাঙ্গা ও দিঘীনালা এই তিন উপজেলায় নারীদের জন্য নারী ই-কমার্স প্রফেশনাল, নারী ফ্রী ল্যান্সার, নারী কল সেন্টার এজেন্ট ও নারী আইটি সার্ভিস প্রোভাইডার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ই-কমার্স প্রফেসনাল ক্যাগাগরিতে ৩ উপজেলায় ২৫ জন করে মোট ৭৫ জন নারী প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছে। দিঘীনালা উপজেলা, খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা ও মাটিরাঙ্গা  প্রতিটি উপজেলা থেকে ১৮৫ জন করে মোট ৫৫৫ জন নারী চার ক্যাটাগরিতে ০৫ মাসব্যাপী প্রশিক্ষণ  লাভের সুযোগ পাচ্ছে।

তথ্যসূত্র:
মো. রেজুয়ান খান,
জনসংযোপ কর্মকর্তা,
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী’র খাগড়াছড়িতে নারী উপকারভোগীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ

আপডেট সময় : ০২:২৬:৪০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৪

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা’র খাগড়াছড়িতে নারী উপকারভোগীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ

খাগড়াছড়ি থেকে…

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি বলেছেন, প্রযুক্তি বাংলাদেশের নারী-পুরুষ সকলের আর্থিক স্বচ্ছলতা এনে দিয়েছে। পার্বত্য অঞ্চলের যেসব নারী বাইরে কাজ করতে গিয়ে পরিবারের বাধার মুখে পড়েন, তাঁরা প্রযুক্তির মাধ্যমে এখন ঘরে বসেই আয় করতে পারছেন।

পার্বত্য বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তির সর্বোত্তম নিরাপদ ব্যবহার নিশ্চিত করে নারীদের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধিসহ আর্থকর্মসংস্থানের প্লাটফর্ম তৈরি করে দিয়েছে সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগ। এজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়সহ সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান।

আজ শনিবার খাগড়াছড়ি জেলার অফিসার্স ক্লাবের অডিটোরিয়ামে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের `হার পাওয়ার প্রজেক্ট’র প্রযুক্তির সহায়তায় নারীর ক্ষমতায়ন প্রকল্পের মাধ্যমে খাগড়াছড়িতে ৭৫ জন নারী উপকারভোগীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে পাহাড়ে শান্তি, সম্প্রীতি-সহাবস্থান নিশ্চিত করতে সকল নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করার আহ্বান জানান।

খাগড়াছড়ি তথ্য ও যোগাযোগ অধিদপ্তরের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ই-কমার্স প্রফেসনাল ক্যাগাগরিতে ৩ উপজেলার ২৫ জন করে মোট ৭৫ জন নারীর মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ করা হয়।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মো. সহিদুজ্জামানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) রুমানা আক্তার, সদর উপজেলার ইউএনও নাঈমা ইসলাম, মাটিরাঙ্গার ইউএনও ডেজী চক্রবর্তী ও দীঘিনালার ইউএনও মো. মামুনুর রশীদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন হার পাওয়ার উপ-প্রকল্প পরিচালক নিলুফা ইয়াসমিন।প্রশিক্ষণার্থীদের মধ্যে থেকে বক্তব্য দেন খাগড়াছড়ি সদর উপজেলার উপকাভোগী তেজশ্রী চাকমা।

উল্লেখ্য, তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের ব্যবস্থাপনায় দেশের ৪৪টি জেলার মধ্যে মোট ১৩০টি উপজেলায় তথ্য প্রযুক্তিতে নারীদের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে চারটি ক্যাটাগরিতে মোট ২৫,১২৫ জন নারীকে ০৫ (পাঁচ) মাসব্যাপী প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা, মাটিরাঙ্গা ও দিঘীনালা এই তিন উপজেলায় নারীদের জন্য নারী ই-কমার্স প্রফেশনাল, নারী ফ্রী ল্যান্সার, নারী কল সেন্টার এজেন্ট ও নারী আইটি সার্ভিস প্রোভাইডার প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ই-কমার্স প্রফেসনাল ক্যাগাগরিতে ৩ উপজেলায় ২৫ জন করে মোট ৭৫ জন নারী প্রশিক্ষণ গ্রহণ করছে। দিঘীনালা উপজেলা, খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা ও মাটিরাঙ্গা  প্রতিটি উপজেলা থেকে ১৮৫ জন করে মোট ৫৫৫ জন নারী চার ক্যাটাগরিতে ০৫ মাসব্যাপী প্রশিক্ষণ  লাভের সুযোগ পাচ্ছে।

তথ্যসূত্র:
মো. রেজুয়ান খান,
জনসংযোপ কর্মকর্তা,
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়।