ঢাকা ০২:৩২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পাঠাগারের জন্য রকীব শাহ্ বিষয়ক গ্রন্থ সিসিক মেয়রের কাছে হস্তান্তর

আহমদ নাহিদ
  • আপডেট সময় : ০৩:০৯:৩৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪ ৪৪ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

সিসিক মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর কাছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত দু’টি পাঠাগারের জন্য রকীব শাহের ও রকীব শাহ্ বিষয়ক ১২০টি গ্রন্থ হস্তান্তর করেছেন রকীব শাহ্ রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান ড. কাজী কামাল আহমদ।

গত মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) এ সকল গ্রন্থ হস্তান্তর করা হয়। 

এসময় মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী এরকম উদ্যোগের জন্য ড. কাজী কামাল আহমদের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, ‘রকীব শাহের সাহিত্য সৃষ্টি বাংলাদেশের তথা বাংলা ভাষাভাষী মানুষের অমূল্য সম্পদ।’  

জানা যায়, ড. কাজী কামাল আহমদ ইতিমধ্যে রকীব শাহের ও রকীব শাহ্ বিষয়ক প্রায় ৭০টি করে গ্রন্থ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে ও সিলেট বিভাগীয় সরকারি পাঠাগারে হস্তান্তর করেছেন। অদূর ভবিষ্যতে রকীব শাহের এ অমূল্য সম্পদের ভাণ্ডার ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ও কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পেঁৗছানো হবে বলে ড. কাজী কামাল আহমদ আশা প্রকাশ করেন। 

প্রসঙ্গত, এ পর্যন্ত রকীব শাহের ১৮টি ও রকীব শাহ বিষয়ক মোট ১০টি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। রকীব শাহের ১৩টি গ্রন্থ প্রকাশিত হওয়ার পর কবিপুত্র ড. কাজী কামাল আহমদ তাঁরর প্রকাশনী সংস্থা বনবীথি প্রকাশনীর তরফ থেকে ১৯৯৪ সালে বিশ্বের বিভিন্ন আর্কাইভ, লাইব্রেরি ও বিশ্ববিদ্যালয়ে এই গ্রন্থগুলো প্রেরণ করেন। এশিয়া, ইউরোপ, আফ্রিকা ও নর্থ আমেরিকার বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয় ও লাইব্রেরিতে এসকল গ্রন্থ সংরক্ষিত আছে।  

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

পাঠাগারের জন্য রকীব শাহ্ বিষয়ক গ্রন্থ সিসিক মেয়রের কাছে হস্তান্তর

আপডেট সময় : ০৩:০৯:৩৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪
Spread the love

সিসিক মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর কাছে সিলেট সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত দু’টি পাঠাগারের জন্য রকীব শাহের ও রকীব শাহ্ বিষয়ক ১২০টি গ্রন্থ হস্তান্তর করেছেন রকীব শাহ্ রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান ড. কাজী কামাল আহমদ।

গত মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) এ সকল গ্রন্থ হস্তান্তর করা হয়। 

এসময় মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী এরকম উদ্যোগের জন্য ড. কাজী কামাল আহমদের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, ‘রকীব শাহের সাহিত্য সৃষ্টি বাংলাদেশের তথা বাংলা ভাষাভাষী মানুষের অমূল্য সম্পদ।’  

জানা যায়, ড. কাজী কামাল আহমদ ইতিমধ্যে রকীব শাহের ও রকীব শাহ্ বিষয়ক প্রায় ৭০টি করে গ্রন্থ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে ও সিলেট বিভাগীয় সরকারি পাঠাগারে হস্তান্তর করেছেন। অদূর ভবিষ্যতে রকীব শাহের এ অমূল্য সম্পদের ভাণ্ডার ঢাকা, রাজশাহী, খুলনা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ও কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে পেঁৗছানো হবে বলে ড. কাজী কামাল আহমদ আশা প্রকাশ করেন। 

প্রসঙ্গত, এ পর্যন্ত রকীব শাহের ১৮টি ও রকীব শাহ বিষয়ক মোট ১০টি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। রকীব শাহের ১৩টি গ্রন্থ প্রকাশিত হওয়ার পর কবিপুত্র ড. কাজী কামাল আহমদ তাঁরর প্রকাশনী সংস্থা বনবীথি প্রকাশনীর তরফ থেকে ১৯৯৪ সালে বিশ্বের বিভিন্ন আর্কাইভ, লাইব্রেরি ও বিশ্ববিদ্যালয়ে এই গ্রন্থগুলো প্রেরণ করেন। এশিয়া, ইউরোপ, আফ্রিকা ও নর্থ আমেরিকার বিভিন্ন দেশের বিশ্ববিদ্যালয় ও লাইব্রেরিতে এসকল গ্রন্থ সংরক্ষিত আছে।