ঢাকা ০৯:১১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
জাতিসংঘের পূর্ণ সদস্য হতে চায় ফিলিস্তিন; ফিলিস্তিন প্রতিনিধি দলের প্রধান রিয়াদ মনসুর সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত ভারতের শিলচরের সাহিত্য-সংস্কৃতি কর্মীদের সিলেটে সৌজন্য সাক্ষাৎ ছড়াকার সুফিয়ান আহমদ চৌধুরী ছড়াশিল্পের অনন্য এক দিকপাল: প্রফেসর হারুনুর রশীদ ডাক্তারের পরামর্শে চার মাস কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন না বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ বিবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সাইদুর রহমান রেনুর পিতার নামাজে জানাজা আজ দরগা মাসজিদে সিলেটে ডিবি’র জুয়া বিরোধী বিশেষ অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ৬ জুয়ারি আটক সিলেটে ডিবি পুলিশের পৃথক দুটি অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ২২ জন জুয়ারি গ্রেফতার গাজীপুরের কোনাবাড়িতে ঝুট গুদামে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচ ইউনিট গাজীপুরে পারিবারিক বিরোধের জেরে মেয়েকে বাবার হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে জামায়াতের আমির ডা. সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তাহেরের বার্তা

মোহাম্মদ শাহজাহান আহমদ
  • আপডেট সময় : ১১:২১:০৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২৪ ১৩৩ বার পড়া হয়েছে

জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির ডা. সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তাহের বলেছেন, ইসলামী আন্দোলনে সাবেক বলে কিছু নেই, বরং পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন স্তর অতিক্রম করে জান্নাতের অভিযাত্রী হওয়ার মাধ্যমে প্রত্যেক মুমিনকে মঞ্জিলে মকসুদের দিকে অগ্রসর হতে হবে। আর রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে হতাশ হওয়ার কোনো সুযোগ নেই বরং বিজয় আমাদের মধ্যে অবধারিত।।

মঙ্গলবার ঢাকায় জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত ছাত্র আন্দোলনের সাবেক নেতাকর্মীদের নিয়ে ভার্চুয়ালি প্রীতি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. তাহের বলেন, চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে জামায়াতের গ্রহণযোগ্যতা সব শ্রেণি ও মত-পথের মানুষের মধ্যে বেড়েছে। জামায়াত দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সব মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, সাময়িক কোনো ঘটনার কারণে আমাদেরকে হতোদ্যম হলে চলবে না বরং আমাদেরকে আবারো নতুন করে শুরু করতে হবে। নিজের সব কাজের জন্য আল্লাহর কাছে জবাবদিহির অনুভূতি সৃষ্টি করতে হবে।

এর আগে বক্তব্য রাখেন ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর উত্তরের সেক্রেটারি ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম ও কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের ভারপ্রাপ্ত আমির আব্দুর রহমান মূসাসহ আরও অনেকে।

মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, জীবনের কোনো অংশেই কারো জন্যই আন্দোলন থেকে বিচ্যুত হওয়ার সুযোগ নেই। আর এই মহতী কাজের আঞ্জাম দেওয়ার জন্য আমাদের প্রত্যেককে নিজেদের সক্ষমতা বাড়াতে হবে। ইসলামের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করতে হবে কর্মীদের চরিত্র মাধুর্য ও নেক কর্মতৎপরতার মাধ্যমে। তাহলে দ্বীনের বিজয় অনিবার্য হয়ে উঠবে।

রেজাউল করিম বলেন, আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে খেলাফতের দায়িত্ব দিয়ে দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন। আর খলিফা বা প্রতিনিধির দায়িত্ব হলো মহাপ্রভুর দেওয়া সব দায়িত্ব যথাযথভাবে সম্পাদন করা। সে কাজে আঞ্জাম দিতে গিয়েই আমাদের ভাইয়েরা ২৮ অক্টোবর শাহাদাতের অনন্য নজরানা পেশ করেছেন।

সভাপতির বক্তব্যে আব্দুর রহমান মূসা বলেন, আপনারা হচ্ছেন দ্বীনের পথের অগ্রসৈনিক। আপনাদের কাছেই আমারা দ্বীনের পতাকা হস্তান্তর করতে চাই। জনগণের আকাঙ্ক্ষা বাস্তবায়নের জন্য আপনাদেরকেই ময়দানে আপসহীনভাবে কাজ করতে হবে।

প্রীতি সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন- ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ড. মাওলানা হাবিবুর রহমান।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন— কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের নায়েবে আমির ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা এবং সহকারী সেক্রেটারি মাহফুজুর রহমান, নাজিম উদ্দীন মোল্লা, ডা.ফখরুদ্দিন মানিক প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে জামায়াতের আমির ডা. সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তাহেরের বার্তা

আপডেট সময় : ১১:২১:০৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২৪

জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির ডা. সৈয়দ আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ তাহের বলেছেন, ইসলামী আন্দোলনে সাবেক বলে কিছু নেই, বরং পর্যায়ক্রমে বিভিন্ন স্তর অতিক্রম করে জান্নাতের অভিযাত্রী হওয়ার মাধ্যমে প্রত্যেক মুমিনকে মঞ্জিলে মকসুদের দিকে অগ্রসর হতে হবে। আর রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে হতাশ হওয়ার কোনো সুযোগ নেই বরং বিজয় আমাদের মধ্যে অবধারিত।।

মঙ্গলবার ঢাকায় জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত ছাত্র আন্দোলনের সাবেক নেতাকর্মীদের নিয়ে ভার্চুয়ালি প্রীতি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. তাহের বলেন, চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে জামায়াতের গ্রহণযোগ্যতা সব শ্রেণি ও মত-পথের মানুষের মধ্যে বেড়েছে। জামায়াত দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সব মহলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হয়েছে।

তিনি বলেন, সাময়িক কোনো ঘটনার কারণে আমাদেরকে হতোদ্যম হলে চলবে না বরং আমাদেরকে আবারো নতুন করে শুরু করতে হবে। নিজের সব কাজের জন্য আল্লাহর কাছে জবাবদিহির অনুভূতি সৃষ্টি করতে হবে।

এর আগে বক্তব্য রাখেন ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর উত্তরের সেক্রেটারি ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম ও কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের ভারপ্রাপ্ত আমির আব্দুর রহমান মূসাসহ আরও অনেকে।

মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, জীবনের কোনো অংশেই কারো জন্যই আন্দোলন থেকে বিচ্যুত হওয়ার সুযোগ নেই। আর এই মহতী কাজের আঞ্জাম দেওয়ার জন্য আমাদের প্রত্যেককে নিজেদের সক্ষমতা বাড়াতে হবে। ইসলামের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ করতে হবে কর্মীদের চরিত্র মাধুর্য ও নেক কর্মতৎপরতার মাধ্যমে। তাহলে দ্বীনের বিজয় অনিবার্য হয়ে উঠবে।

রেজাউল করিম বলেন, আল্লাহ তায়ালা আমাদেরকে খেলাফতের দায়িত্ব দিয়ে দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন। আর খলিফা বা প্রতিনিধির দায়িত্ব হলো মহাপ্রভুর দেওয়া সব দায়িত্ব যথাযথভাবে সম্পাদন করা। সে কাজে আঞ্জাম দিতে গিয়েই আমাদের ভাইয়েরা ২৮ অক্টোবর শাহাদাতের অনন্য নজরানা পেশ করেছেন।

সভাপতির বক্তব্যে আব্দুর রহমান মূসা বলেন, আপনারা হচ্ছেন দ্বীনের পথের অগ্রসৈনিক। আপনাদের কাছেই আমারা দ্বীনের পতাকা হস্তান্তর করতে চাই। জনগণের আকাঙ্ক্ষা বাস্তবায়নের জন্য আপনাদেরকেই ময়দানে আপসহীনভাবে কাজ করতে হবে।

প্রীতি সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন- ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ড. মাওলানা হাবিবুর রহমান।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন— কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরা সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের নায়েবে আমির ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা এবং সহকারী সেক্রেটারি মাহফুজুর রহমান, নাজিম উদ্দীন মোল্লা, ডা.ফখরুদ্দিন মানিক প্রমুখ।