ঢাকা ০২:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়তে যাচ্ছে কিশোরগঞ্জের হাওরে ১৪ কি.মি. দীর্ঘ ‘আলপনায় বৈশাখ ১৪৩১’ !

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ০৩:২৫:১৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ৯৩ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়তে যাচ্ছে কিশোরগঞ্জের হাওরে জিরোপয়েন্ট থেকে অষ্টগ্রাম উপজেলার জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত ১৪ কিলোমিটার দৃষ্টিনন্দন অলওয়েদার সড়কপথ। বৈশাখী আলপনায় সাজানো হচ্ছে রাস্তাটি। ইতোমধ্যেই আলপনা আঁকার কাজ করেছেন ৬৫০ জন শিল্পী।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) বিকেলে হাওড় উপজেলা মিঠামইনে ‘এ অলওয়েদার’ সড়কপথের জিরো পয়েন্টে এমন বৈশাখী চিত্রকর্ম আলপনা আঁকা অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী ও দেশবরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর।

উদ্বোধনকালে আসাদুজ্জামান নূর বলেন, এ সড়কে আলপনা আঁকার পর বিশ্বরেকর্ড হিসেবে নথিভুক্ত করার উদ্যোগ নেয়া হবে।

এশিয়াটিক এক্সপেরিয়েনশিয়াল মার্কেটিং লিমিটেড, বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশনস লিমিটেড ও বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে বাস্তবায়নাধীন এ আয়োজনের নাম দেওয়া হয়েছে ‘আলপনায় বৈশাখ ১৪৩১’।

দৃষ্টিনন্দন আলপনায় বৈশাখ উদযাপনের এমন শৈল্পিকতা ও মুগ্ধতা ছড়িয়ে দিতে ঢাকাসহ দেশের মোট তিনটি এলাকায় এমন আলপনা আঁকার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শুক্রবার মিঠামইন হাওড়ের সড়কপথ থেকে শুরু করা আলপনা আঁকার কাজ শেষ হয় আজ রবিবার।

আয়োজকরা জানান, রঙ-তুলির আঁচড়ে বাঙালি সংস্কৃতি দেশ ও বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরতেই দেশের সবচেয়ে বড় আলপনা উৎসব ‘আলপনায় বৈশাখ ১৪৩১।’ আয়োজন করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের মিঠামইন জিরোপয়েন্ট থেকে অষ্টগ্রাম জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত ১৪ কিলোমিটার সড়কে আলপনা অঙ্কনের মাধ্যমে বিশ্বের দীর্ঘতম আলপনা তৈরির বিশ্ব রেকর্ড গড়ার প্রচেষ্টা নেয়া হয়েছে বলেও জানান তারা।

আজ রবিবার আলপনা চিত্রকর্ম আঁকার সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়তে যাচ্ছে কিশোরগঞ্জের হাওরে ১৪ কি.মি. দীর্ঘ ‘আলপনায় বৈশাখ ১৪৩১’ !

আপডেট সময় : ০৩:২৫:১৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪
Spread the love

নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়তে যাচ্ছে কিশোরগঞ্জের হাওরে জিরোপয়েন্ট থেকে অষ্টগ্রাম উপজেলার জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত ১৪ কিলোমিটার দৃষ্টিনন্দন অলওয়েদার সড়কপথ। বৈশাখী আলপনায় সাজানো হচ্ছে রাস্তাটি। ইতোমধ্যেই আলপনা আঁকার কাজ করেছেন ৬৫০ জন শিল্পী।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) বিকেলে হাওড় উপজেলা মিঠামইনে ‘এ অলওয়েদার’ সড়কপথের জিরো পয়েন্টে এমন বৈশাখী চিত্রকর্ম আলপনা আঁকা অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী ও দেশবরেণ্য সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আসাদুজ্জামান নূর।

উদ্বোধনকালে আসাদুজ্জামান নূর বলেন, এ সড়কে আলপনা আঁকার পর বিশ্বরেকর্ড হিসেবে নথিভুক্ত করার উদ্যোগ নেয়া হবে।

এশিয়াটিক এক্সপেরিয়েনশিয়াল মার্কেটিং লিমিটেড, বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশনস লিমিটেড ও বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে বাস্তবায়নাধীন এ আয়োজনের নাম দেওয়া হয়েছে ‘আলপনায় বৈশাখ ১৪৩১’।

দৃষ্টিনন্দন আলপনায় বৈশাখ উদযাপনের এমন শৈল্পিকতা ও মুগ্ধতা ছড়িয়ে দিতে ঢাকাসহ দেশের মোট তিনটি এলাকায় এমন আলপনা আঁকার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শুক্রবার মিঠামইন হাওড়ের সড়কপথ থেকে শুরু করা আলপনা আঁকার কাজ শেষ হয় আজ রবিবার।

আয়োজকরা জানান, রঙ-তুলির আঁচড়ে বাঙালি সংস্কৃতি দেশ ও বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরতেই দেশের সবচেয়ে বড় আলপনা উৎসব ‘আলপনায় বৈশাখ ১৪৩১।’ আয়োজন করা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জের মিঠামইন জিরোপয়েন্ট থেকে অষ্টগ্রাম জিরোপয়েন্ট পর্যন্ত ১৪ কিলোমিটার সড়কে আলপনা অঙ্কনের মাধ্যমে বিশ্বের দীর্ঘতম আলপনা তৈরির বিশ্ব রেকর্ড গড়ার প্রচেষ্টা নেয়া হয়েছে বলেও জানান তারা।

আজ রবিবার আলপনা চিত্রকর্ম আঁকার সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।