ঢাকা ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
জাতিসংঘের পূর্ণ সদস্য হতে চায় ফিলিস্তিন; ফিলিস্তিন প্রতিনিধি দলের প্রধান রিয়াদ মনসুর সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত ভারতের শিলচরের সাহিত্য-সংস্কৃতি কর্মীদের সিলেটে সৌজন্য সাক্ষাৎ ছড়াকার সুফিয়ান আহমদ চৌধুরী ছড়াশিল্পের অনন্য এক দিকপাল: প্রফেসর হারুনুর রশীদ ডাক্তারের পরামর্শে চার মাস কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন না বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ বিবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সাইদুর রহমান রেনুর পিতার নামাজে জানাজা আজ দরগা মাসজিদে সিলেটে ডিবি’র জুয়া বিরোধী বিশেষ অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ৬ জুয়ারি আটক সিলেটে ডিবি পুলিশের পৃথক দুটি অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ২২ জন জুয়ারি গ্রেফতার গাজীপুরের কোনাবাড়িতে ঝুট গুদামে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচ ইউনিট গাজীপুরে পারিবারিক বিরোধের জেরে মেয়েকে বাবার হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা

দুই চেহারাধারী মানুষের আবির্ভাব : কিয়ামতের অন্যতম আলামতের বহি:প্রকাশ

আহমদ নাহিদ
  • আপডেট সময় : ০৯:৪৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৪ ২১৫ বার পড়া হয়েছে

কিয়ামতের আলামত সমূহের মধ্যে অন্যতম হলো-দুই চেহারা বিশিষ্ট লোকের আবির্ভাব/উপদ্রব হবে এবং তাদের সংখ্যা দিনদিন বেড়ে যাবে। এই দুই চেহারা বিশিষ্ট লোকগুলো আসলেই মুনাফিক।

মুনাফিকরা “গিরগিটি” নামক প্রাণী এর মত,সময়ে সময়ে তাদের রং-রূপ এবং আচরণ বদলায়। কিয়ামতের যত আলামত,তার মধ্যে অন্যতম হলো-দুই চেহারার মানুষের সংখ্যা বেড়ে যাওয়া। যেমন-
ক. হযরত আবূ-হুরায়রাহ (রাদ্বি.) থেকে বর্ণিত আছে,তিনি বলেন,রাসূল (সা.) ঘোষণা করেছেন,
تجدون شر الناس ذاالوجهين الذي ياءتي هؤلاء بوجه وهؤلاء بوجه.
“তোমরা মানুষদের মধ্যে সবচেয়ে নিকৃষ্ট মানুষ হিসাবে দুই চেহারার লোকদেরকে দেখতে পাবে। যারা একদলের নিকট একটি চেহারা এবং অন্য দলের নিকট অন্য চেহারা নিয়ে উপস্থিত হবে।”
[মু’আত্তা মালিক,বুখারী ও মুসলিম; সূত্র : আত্- তারগীব ওয়াত্-তারহীব, হাদীস নং : ৪৩৩৪।]
খ. হযরত সা’দ ইবনে আবি-ওয়াক্কাস (রাদ্বি.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনিয়াছি,
ذوالوجهين في الدنيا ياءتي يوم القيامة وله وجهان من نار.
“যেই ব্যক্তি দুনিয়ায় দুই চেহারা বিশিষ্ট হবে, কিয়ামতের দিন সে আগুনের দু’টি চেহারা নিয়ে উপস্থিত হবে।”
[আল-মু’জামুল-আওসাত লিত্-ত্বাবরানী,সূত্র : আত্-তারগীব ওয়াত্-তারহীব,হাদীস নং : ৪৩৩৬।]
গ. হযরত আনাস ইবনে মালিক (রাদ্বি.) হতে বর্নিত, নিশ্চয়ই রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইর্শাদ করেছেন,
من كان ذا لسانين جعل الله له يوم القيامة لسانين من نار.
“দুনিয়াতে যেই লোকের দুইটি জিহবা (দ্বিমুখী কথাবার্তা/ভাব) থাকবে,কিয়ামতের দিন তাকে জাহান্নামের আগুনের দু’টি জিহবা প্রদান করা হবে।” অর্থাৎ ইহকালীন জীবনে তার দ্বিমুখী কথাবার্তা ও নীতির কারণে পরকালেও তাকে আগুনের দু’টি জিহবা আল্লাহ তাআ’লা তাকে দিয়ে উঠাবেন।
[আত্-তারগীব ওয়াত্-তারহীব,হাদীস নং : ৪৩৩৮।]
ঘ. অন্য একটি হাদীসে বর্ণিত আছে,
عَنْ عَمَّارٍ قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: (مَنْ كَانَ لَهُ وَجْهَانِ فِي الدُّنْيَا كَانَ لَهُ يَوْمَ الْقِيَامَةِ لِسَانَانِ مِنْ نَارٍ).
হযরত আম্মার (রা.) থেকে বর্ণিত,তিনি বলেন,রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন,”দুনিয়ায় যেই ব্যক্তির দু’টি চেহারা হবে কিয়ামতের দিন তার আগুনের দুইটি জিহবা থাকবে।”
(আবি-দাউদ,কিতাবুল-আদাব,হাদীস নং : ৪৮৭৫।)
উপরোক্ত হাদীসসমূহ দ্বারা বুঝা যায় যে, মুনাফিকগণ হবে দুই চেহারা বিশিষ্ট। এই চরিত্রের মানুষের সংখ্যা উত্তরোত্তর যতই বাড়বে কিয়ামত ততই ঘনিয়ে আসবে। বর্তমান সময়ে আপনী যদি নিরপেক্ষ মন নিয়ে চিন্তা করেন, তাহলে দেখতে পাবেন যে,কিছু সুশীল (ভদ্রলোক ভেষধারী) আপনার কাছে ও প্রিয় থাকতে চায়,আবার আপনার শত্রু যে,তার কাছেও প্রিয় থাকতে চায়। সকাল বেলা তারা বলবে,’আওয়ামী লীগ ভালো একটি রাজনৈতিক দল।’ বিকালে বলে, ‘না বি.এন.পি ভালো দল।’ রাত্রী বেলায় বলে,”আরে ‘জমাতর ইসলাম’ সবচেয়ে ভালো আদর্শ দল।’
এই শ্রেণীর মুনাফিকদের সংখ্যা আমাদের এই ক্ষুদ্র বাংলাদেশে ভরপুর। যার কারণে আমাদের দেশের সামাজিক এবং রাজনৈতিক পরিবেশ এত নোংরা।
আল্লাহ তাআ’লা আমাদের দেশের সাধারণ মানুষকে এ জাতীয় মুনাফিকদের আচার- আচরণ এবং ধোঁকা থেকে বেঁচে থাকার তাওফীক দান করুন,আমীন।
আল্লাহ তাআ’লা আমাদেরকে এসব নিফাকী আচরণ বা চরিত্র থেকে হেফাযত করুন। আমীন।।

মাওলানা মো: ওলীউল্লাহ মথহুরী
প্রভাষক (ইসলাম শিক্ষা)
সিলেট সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ,
সিলেট।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

দুই চেহারাধারী মানুষের আবির্ভাব : কিয়ামতের অন্যতম আলামতের বহি:প্রকাশ

আপডেট সময় : ০৯:৪৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৪

কিয়ামতের আলামত সমূহের মধ্যে অন্যতম হলো-দুই চেহারা বিশিষ্ট লোকের আবির্ভাব/উপদ্রব হবে এবং তাদের সংখ্যা দিনদিন বেড়ে যাবে। এই দুই চেহারা বিশিষ্ট লোকগুলো আসলেই মুনাফিক।

মুনাফিকরা “গিরগিটি” নামক প্রাণী এর মত,সময়ে সময়ে তাদের রং-রূপ এবং আচরণ বদলায়। কিয়ামতের যত আলামত,তার মধ্যে অন্যতম হলো-দুই চেহারার মানুষের সংখ্যা বেড়ে যাওয়া। যেমন-
ক. হযরত আবূ-হুরায়রাহ (রাদ্বি.) থেকে বর্ণিত আছে,তিনি বলেন,রাসূল (সা.) ঘোষণা করেছেন,
تجدون شر الناس ذاالوجهين الذي ياءتي هؤلاء بوجه وهؤلاء بوجه.
“তোমরা মানুষদের মধ্যে সবচেয়ে নিকৃষ্ট মানুষ হিসাবে দুই চেহারার লোকদেরকে দেখতে পাবে। যারা একদলের নিকট একটি চেহারা এবং অন্য দলের নিকট অন্য চেহারা নিয়ে উপস্থিত হবে।”
[মু’আত্তা মালিক,বুখারী ও মুসলিম; সূত্র : আত্- তারগীব ওয়াত্-তারহীব, হাদীস নং : ৪৩৩৪।]
খ. হযরত সা’দ ইবনে আবি-ওয়াক্কাস (রাদ্বি.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনিয়াছি,
ذوالوجهين في الدنيا ياءتي يوم القيامة وله وجهان من نار.
“যেই ব্যক্তি দুনিয়ায় দুই চেহারা বিশিষ্ট হবে, কিয়ামতের দিন সে আগুনের দু’টি চেহারা নিয়ে উপস্থিত হবে।”
[আল-মু’জামুল-আওসাত লিত্-ত্বাবরানী,সূত্র : আত্-তারগীব ওয়াত্-তারহীব,হাদীস নং : ৪৩৩৬।]
গ. হযরত আনাস ইবনে মালিক (রাদ্বি.) হতে বর্নিত, নিশ্চয়ই রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইর্শাদ করেছেন,
من كان ذا لسانين جعل الله له يوم القيامة لسانين من نار.
“দুনিয়াতে যেই লোকের দুইটি জিহবা (দ্বিমুখী কথাবার্তা/ভাব) থাকবে,কিয়ামতের দিন তাকে জাহান্নামের আগুনের দু’টি জিহবা প্রদান করা হবে।” অর্থাৎ ইহকালীন জীবনে তার দ্বিমুখী কথাবার্তা ও নীতির কারণে পরকালেও তাকে আগুনের দু’টি জিহবা আল্লাহ তাআ’লা তাকে দিয়ে উঠাবেন।
[আত্-তারগীব ওয়াত্-তারহীব,হাদীস নং : ৪৩৩৮।]
ঘ. অন্য একটি হাদীসে বর্ণিত আছে,
عَنْ عَمَّارٍ قَالَ: قَالَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللَّهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ: (مَنْ كَانَ لَهُ وَجْهَانِ فِي الدُّنْيَا كَانَ لَهُ يَوْمَ الْقِيَامَةِ لِسَانَانِ مِنْ نَارٍ).
হযরত আম্মার (রা.) থেকে বর্ণিত,তিনি বলেন,রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন,”দুনিয়ায় যেই ব্যক্তির দু’টি চেহারা হবে কিয়ামতের দিন তার আগুনের দুইটি জিহবা থাকবে।”
(আবি-দাউদ,কিতাবুল-আদাব,হাদীস নং : ৪৮৭৫।)
উপরোক্ত হাদীসসমূহ দ্বারা বুঝা যায় যে, মুনাফিকগণ হবে দুই চেহারা বিশিষ্ট। এই চরিত্রের মানুষের সংখ্যা উত্তরোত্তর যতই বাড়বে কিয়ামত ততই ঘনিয়ে আসবে। বর্তমান সময়ে আপনী যদি নিরপেক্ষ মন নিয়ে চিন্তা করেন, তাহলে দেখতে পাবেন যে,কিছু সুশীল (ভদ্রলোক ভেষধারী) আপনার কাছে ও প্রিয় থাকতে চায়,আবার আপনার শত্রু যে,তার কাছেও প্রিয় থাকতে চায়। সকাল বেলা তারা বলবে,’আওয়ামী লীগ ভালো একটি রাজনৈতিক দল।’ বিকালে বলে, ‘না বি.এন.পি ভালো দল।’ রাত্রী বেলায় বলে,”আরে ‘জমাতর ইসলাম’ সবচেয়ে ভালো আদর্শ দল।’
এই শ্রেণীর মুনাফিকদের সংখ্যা আমাদের এই ক্ষুদ্র বাংলাদেশে ভরপুর। যার কারণে আমাদের দেশের সামাজিক এবং রাজনৈতিক পরিবেশ এত নোংরা।
আল্লাহ তাআ’লা আমাদের দেশের সাধারণ মানুষকে এ জাতীয় মুনাফিকদের আচার- আচরণ এবং ধোঁকা থেকে বেঁচে থাকার তাওফীক দান করুন,আমীন।
আল্লাহ তাআ’লা আমাদেরকে এসব নিফাকী আচরণ বা চরিত্র থেকে হেফাযত করুন। আমীন।।

মাওলানা মো: ওলীউল্লাহ মথহুরী
প্রভাষক (ইসলাম শিক্ষা)
সিলেট সরকারি মডেল স্কুল এন্ড কলেজ,
সিলেট।