ঢাকা ১০:৪০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
গার্ল গাইড্স এসোসিয়েশন সিলেট অঞ্চলের উদ্যোগে বিশ্ব চিন্তা দিবস পালন শুধু রোহিঙ্গা না, পুরো বার্মা একটা জটিল জিনিস ডয়চে ভেলের এক অনুষ্ঠানে ড. ইউনূস ছাতকে সুবিধা বঞ্চিত একজনকে রোটারী ক্লাব অব সিলেট মিডটাউনের ঘর হস্থান্তর মুরারিচাঁদ কলেজের ইতিহাস ও ঐতিহ্য অনুষঙ্গ এবং প্রাসঙ্গিক ভাবনা শীর্ষক মুক্ত আলোচনা জাতিসংঘের পূর্ণ সদস্য হতে চায় ফিলিস্তিন; ফিলিস্তিন প্রতিনিধি দলের প্রধান রিয়াদ মনসুর সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত ভারতের শিলচরের সাহিত্য-সংস্কৃতি কর্মীদের সিলেটে সৌজন্য সাক্ষাৎ ছড়াকার সুফিয়ান আহমদ চৌধুরী ছড়াশিল্পের অনন্য এক দিকপাল: প্রফেসর হারুনুর রশীদ ডাক্তারের পরামর্শে চার মাস কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন না বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ বিবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সাইদুর রহমান রেনুর পিতার নামাজে জানাজা আজ দরগা মাসজিদে

গাজায় হামাসের ডেরা থেকে দুই বন্দি উদ্বার, নিহত ৬৭ প্যালেস্টাইনি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
  • আপডেট সময় : ১১:০২:১৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৮৮ বার পড়া হয়েছে

গাজার রাফাহ্‌তে হামাসের ডেরায় ঢুকে দু’জনকে বন্দি ছাড়িয়ে আনল ইজ়রায়েলের সেনাবাহিনী। সোমবার ভোররাতে নাটকীয় অভিযান চালায় তারা। ছোড়ে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র। হামাসের হাতে এখন ইজরায়েলের ১০০ জন বন্দি রয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। দু’জন বন্দিকে ছাড়িয়ে আনার পর ইজরায়েলে উদ্‌যাপনও হয়েছে।

সেই অভিযানে প্রাণ হারালেন প্যালেস্টাইনের অন্তত ৬৭ জন বাসিন্দা। দাবি করেছে প্যালেস্টাইনি স্বাস্থ্যকর্তা। মৃতদের মধ্যে বহু মহিলা এবং শিশুও রয়েছে। ইজ়রায়েল সেনার লাগাতার হামলায় গাজ়া ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছেন ১৪ লক্ষ প্যালেস্টাইনি।

প্রসঙ্গত, রবিবারই হোয়াইট হাউস জানায়, ইজরায়েলের প্রেসিডেন্ট নেতানিয়াহুকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাইডেন। জানিয়েছেন, রাফাহ্‌তে সাধারণ মানুষকে উদ্ধারের পরিকল্পনা ছাড়া অভিযান চলবে না।

এদিকে গাজ়ার হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ৭ অক্টোবর থেকে ইজরায়েলের হামলায় এখন পর্যন্ত মারা গিয়েছেন ২৮ হাজার ১৭৬ জন। নিহতদের মধ্যে ১২ হাজার ৩০০ জন শিশু এবং কিশোর-কিশোরী। যদিও ইজরায়েলের দাবি, তারা হাজার হাজার হামাস যোদ্ধাকে শেষ করে দিয়েছে।

ইজরায়েলী সেনার মুখপাত্র ড্যানিয়েল হাগারি জানিয়েছেন, রাফাহ‌্‌র একটি বহুতলের তৃতীয় তলে রাখা ছিল ওই দু’জনকে। পাহারায় ছিল হামাসের সশস্ত্র রক্ষীরা। তাদের মোকাবিলা করে সোমবার রাত ১টা ৪৯ মিনিট নাগাদ দু’জনকে ছাড়িয়ে আনা হয়। প্রথমে দুই পণবন্দিকে আড়াল করেন জওয়ানেরা। তার পরে হামাস যোদ্ধাদের উপর হামলা চালায়। পণবন্দিদের তুলে বিমানে চাপিয়ে মধ্য ইজরায়েলে নিয়ে আসা হয়। সেখানে শেবা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করানো হয়েছে তাদের। দু’জনই সুস্থ রয়েছেন বলে খবরে জানা যায়। হাগারি জানিয়েছেন, গোয়েন্দা সূত্রে খবর সংগ্রহ করে এই উদ্ধারের পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর ফলে ইজরায়েলি সেনার মনোবল বৃদ্ধি পাবে। প্রসঙ্গত, এই রাফাহ্‌ এখনও নিজেদের দখলে রেখেছে হামাস।

সেনার তরফে জানানো হয়েছে, বন্দি দু’জনের নাম ফার্নান্দো সিমন মারমান এবং লুই হার। একজনের বয়স ৬০ বছর। আরেক জনের বয়স ৭০ বছর। গত ৭ অক্টোবর ইজরায়েলের ভূখণ্ডে ঢুকে হামলা চালিয়েছিল হামাস। পণবন্দি করেছিল প্রায় ২৫০ জনকে। কিবুৎজ় নির ইৎজ়াখ থেকে ওই দু’জনকে আটক করেছিল হামাস। ওইদিন হামাসের হামলায় অন্তত ১,২০০ জন ইজ়রায়েলি মারা গিয়েছেন বলেও দাবি করে সে দেশের সরকার।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

গাজায় হামাসের ডেরা থেকে দুই বন্দি উদ্বার, নিহত ৬৭ প্যালেস্টাইনি

আপডেট সময় : ১১:০২:১৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

গাজার রাফাহ্‌তে হামাসের ডেরায় ঢুকে দু’জনকে বন্দি ছাড়িয়ে আনল ইজ়রায়েলের সেনাবাহিনী। সোমবার ভোররাতে নাটকীয় অভিযান চালায় তারা। ছোড়ে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র। হামাসের হাতে এখন ইজরায়েলের ১০০ জন বন্দি রয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। দু’জন বন্দিকে ছাড়িয়ে আনার পর ইজরায়েলে উদ্‌যাপনও হয়েছে।

সেই অভিযানে প্রাণ হারালেন প্যালেস্টাইনের অন্তত ৬৭ জন বাসিন্দা। দাবি করেছে প্যালেস্টাইনি স্বাস্থ্যকর্তা। মৃতদের মধ্যে বহু মহিলা এবং শিশুও রয়েছে। ইজ়রায়েল সেনার লাগাতার হামলায় গাজ়া ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছেন ১৪ লক্ষ প্যালেস্টাইনি।

প্রসঙ্গত, রবিবারই হোয়াইট হাউস জানায়, ইজরায়েলের প্রেসিডেন্ট নেতানিয়াহুকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাইডেন। জানিয়েছেন, রাফাহ্‌তে সাধারণ মানুষকে উদ্ধারের পরিকল্পনা ছাড়া অভিযান চলবে না।

এদিকে গাজ়ার হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ৭ অক্টোবর থেকে ইজরায়েলের হামলায় এখন পর্যন্ত মারা গিয়েছেন ২৮ হাজার ১৭৬ জন। নিহতদের মধ্যে ১২ হাজার ৩০০ জন শিশু এবং কিশোর-কিশোরী। যদিও ইজরায়েলের দাবি, তারা হাজার হাজার হামাস যোদ্ধাকে শেষ করে দিয়েছে।

ইজরায়েলী সেনার মুখপাত্র ড্যানিয়েল হাগারি জানিয়েছেন, রাফাহ‌্‌র একটি বহুতলের তৃতীয় তলে রাখা ছিল ওই দু’জনকে। পাহারায় ছিল হামাসের সশস্ত্র রক্ষীরা। তাদের মোকাবিলা করে সোমবার রাত ১টা ৪৯ মিনিট নাগাদ দু’জনকে ছাড়িয়ে আনা হয়। প্রথমে দুই পণবন্দিকে আড়াল করেন জওয়ানেরা। তার পরে হামাস যোদ্ধাদের উপর হামলা চালায়। পণবন্দিদের তুলে বিমানে চাপিয়ে মধ্য ইজরায়েলে নিয়ে আসা হয়। সেখানে শেবা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করানো হয়েছে তাদের। দু’জনই সুস্থ রয়েছেন বলে খবরে জানা যায়। হাগারি জানিয়েছেন, গোয়েন্দা সূত্রে খবর সংগ্রহ করে এই উদ্ধারের পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর ফলে ইজরায়েলি সেনার মনোবল বৃদ্ধি পাবে। প্রসঙ্গত, এই রাফাহ্‌ এখনও নিজেদের দখলে রেখেছে হামাস।

সেনার তরফে জানানো হয়েছে, বন্দি দু’জনের নাম ফার্নান্দো সিমন মারমান এবং লুই হার। একজনের বয়স ৬০ বছর। আরেক জনের বয়স ৭০ বছর। গত ৭ অক্টোবর ইজরায়েলের ভূখণ্ডে ঢুকে হামলা চালিয়েছিল হামাস। পণবন্দি করেছিল প্রায় ২৫০ জনকে। কিবুৎজ় নির ইৎজ়াখ থেকে ওই দু’জনকে আটক করেছিল হামাস। ওইদিন হামাসের হামলায় অন্তত ১,২০০ জন ইজ়রায়েলি মারা গিয়েছেন বলেও দাবি করে সে দেশের সরকার।