ঢাকা ০৭:৩৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
জাতিসংঘের পূর্ণ সদস্য হতে চায় ফিলিস্তিন; ফিলিস্তিন প্রতিনিধি দলের প্রধান রিয়াদ মনসুর সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত ভারতের শিলচরের সাহিত্য-সংস্কৃতি কর্মীদের সিলেটে সৌজন্য সাক্ষাৎ ছড়াকার সুফিয়ান আহমদ চৌধুরী ছড়াশিল্পের অনন্য এক দিকপাল: প্রফেসর হারুনুর রশীদ ডাক্তারের পরামর্শে চার মাস কারও সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন না বিএনপি নেতা খন্দকার মোশাররফ বিবিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সাইদুর রহমান রেনুর পিতার নামাজে জানাজা আজ দরগা মাসজিদে সিলেটে ডিবি’র জুয়া বিরোধী বিশেষ অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ৬ জুয়ারি আটক সিলেটে ডিবি পুলিশের পৃথক দুটি অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ২২ জন জুয়ারি গ্রেফতার গাজীপুরের কোনাবাড়িতে ঝুট গুদামে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচ ইউনিট গাজীপুরে পারিবারিক বিরোধের জেরে মেয়েকে বাবার হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা

স্হানীয় ঈমাম সাহেবের মতে, যাদু টোনা করার উদ্দেশ্য কেউ করতে পারে

কুড়িগ্রামে ১০১টি সুঁই বিদ্ধ পুতুল উদ্ধার, পরিবারে আতঙ্ক

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় : ০৪:৫২:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২৪ ৬০ বার পড়া হয়েছে

কুড়িগ্রাম:

শিশুদের খেলার পুতুল। লাল সাদা রঙের পোশাক পড়ানো। সেই পুতুলের গায়ে ফোটানো আছে ১০১টি সুই। এমন পুতুল পেয়ে কুড়িগ্রাম পৌর শহরের কলেজ পাড়া গ্রামের একটি পরিবার আতঙ্কিত। যা উৎসুক মানুষের মাঝে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে ওই গ্রামের মৃত মাজেদুল ইসলামের বাড়ির ভেতরে পুতুলটি পাওয়া যায়। ঘটনা শোনার পর পুতুলটি একনজর দেখতে আসছেন এলাকার মানুষ।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানান, সকাল বেলা হঠাৎ করে ওই বাড়িতে চিৎকার চেচামেচি শোনা গেলে আশপাশের লোকজন দৌড়ে যায়। সেখানে গিয়ে দেখা যায়, একটা লাল সাদা পুতুলের গায়ে অনেকগুলো সুই ঢুকানো। অনেকের ধারণা, কেউ যাদু টোনা করতে এ কাজ করেছে। পুতুল দেখে পরিবারটি আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে।

ওই বাড়ির বাসিন্দা মর্জিনা বেগম (৩৬) বলেন, সকালে ঘুম থেকে উঠে নামাজ পড়ে হাটতে বের হই। হাটা শেষে বাড়ি এসে মেয়েকে স্কুলে পাঠানোর জন্য তৈরী করছিলাম। এ সময় আমার মেয়ের চোখে পুতুলটি পড়ে। পুতুলটি নিয়ে দেখি তার সারা শরীরে সুই ফোটানো। গুনে দেখি ১০১টি সুই। আমি ভয় পেয়ে যাই। আমার ভাইকে ডাক দেই। প্রতিবেশীরাও আসে।

মর্জিনা জানান, এলাকার কারও সঙ্গে তাদের ঝগড়া বিবাদ নেই। কে বা কেন এমন করলো তারা বুঝতে পারছেন না। এ ঘটনায় তারা দুঃশ্চিন্তায় পড়েছেন। ভয় পেয়ে আশঙ্কা করছে অনেক কিছুর।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আনিছুর রহমান বলেন, আমার কাছের এলাকার ঘটনা। বাড়িতে কে বা কারা একটি পুতুল রেখে গেছে। পুতুলের গায়ে ১০১টি সুই ঢুকানো। পরিবারটি দুশ্চিন্তায় আছেন। আমরা সাহস দিয়েছি।

সরদারপাড়া জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা মোঃ শাহাজাহান আলী বলেন, যাদু টোনা করার উদ্দেশ্য কেউ এটা করেছে কিনা দেখলে বুঝা যাবে। পুতুলটির গায়ে কারো নাম লেখা থাকলে এটা কালা যাদুর মধ্যে পড়ে। হাদিসেও যাদু-টোনা উল্লেখ আছে বলে জানান তিনি।

কুড়িগ্রামের সাবেক সিভিল সার্জন ডা. এস.এম আমিনুল ইসলাম জানান, প্রতারণা করার জন্য কিছু মানুষ এ ধরণের কাজ করে আসছে। যার বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। ভিকটিমকে ধারণা দেয়া হয় এই সুঁই পুতুলের শরীরে ফোটালে শত্রুর শরীরে গিয়ে আঘাত লাগবে। যাকে স্থানীয়ভাবে কালো যাদু কিংবা বান মারা বলা হয়ে থাকে। কিছু মানুষ অর্থ উপার্জনের জন্য এসব করে থাকেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

স্হানীয় ঈমাম সাহেবের মতে, যাদু টোনা করার উদ্দেশ্য কেউ করতে পারে

কুড়িগ্রামে ১০১টি সুঁই বিদ্ধ পুতুল উদ্ধার, পরিবারে আতঙ্ক

আপডেট সময় : ০৪:৫২:৪০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২৪

কুড়িগ্রাম:

শিশুদের খেলার পুতুল। লাল সাদা রঙের পোশাক পড়ানো। সেই পুতুলের গায়ে ফোটানো আছে ১০১টি সুই। এমন পুতুল পেয়ে কুড়িগ্রাম পৌর শহরের কলেজ পাড়া গ্রামের একটি পরিবার আতঙ্কিত। যা উৎসুক মানুষের মাঝে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে ওই গ্রামের মৃত মাজেদুল ইসলামের বাড়ির ভেতরে পুতুলটি পাওয়া যায়। ঘটনা শোনার পর পুতুলটি একনজর দেখতে আসছেন এলাকার মানুষ।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানান, সকাল বেলা হঠাৎ করে ওই বাড়িতে চিৎকার চেচামেচি শোনা গেলে আশপাশের লোকজন দৌড়ে যায়। সেখানে গিয়ে দেখা যায়, একটা লাল সাদা পুতুলের গায়ে অনেকগুলো সুই ঢুকানো। অনেকের ধারণা, কেউ যাদু টোনা করতে এ কাজ করেছে। পুতুল দেখে পরিবারটি আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে।

ওই বাড়ির বাসিন্দা মর্জিনা বেগম (৩৬) বলেন, সকালে ঘুম থেকে উঠে নামাজ পড়ে হাটতে বের হই। হাটা শেষে বাড়ি এসে মেয়েকে স্কুলে পাঠানোর জন্য তৈরী করছিলাম। এ সময় আমার মেয়ের চোখে পুতুলটি পড়ে। পুতুলটি নিয়ে দেখি তার সারা শরীরে সুই ফোটানো। গুনে দেখি ১০১টি সুই। আমি ভয় পেয়ে যাই। আমার ভাইকে ডাক দেই। প্রতিবেশীরাও আসে।

মর্জিনা জানান, এলাকার কারও সঙ্গে তাদের ঝগড়া বিবাদ নেই। কে বা কেন এমন করলো তারা বুঝতে পারছেন না। এ ঘটনায় তারা দুঃশ্চিন্তায় পড়েছেন। ভয় পেয়ে আশঙ্কা করছে অনেক কিছুর।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আনিছুর রহমান বলেন, আমার কাছের এলাকার ঘটনা। বাড়িতে কে বা কারা একটি পুতুল রেখে গেছে। পুতুলের গায়ে ১০১টি সুই ঢুকানো। পরিবারটি দুশ্চিন্তায় আছেন। আমরা সাহস দিয়েছি।

সরদারপাড়া জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা মোঃ শাহাজাহান আলী বলেন, যাদু টোনা করার উদ্দেশ্য কেউ এটা করেছে কিনা দেখলে বুঝা যাবে। পুতুলটির গায়ে কারো নাম লেখা থাকলে এটা কালা যাদুর মধ্যে পড়ে। হাদিসেও যাদু-টোনা উল্লেখ আছে বলে জানান তিনি।

কুড়িগ্রামের সাবেক সিভিল সার্জন ডা. এস.এম আমিনুল ইসলাম জানান, প্রতারণা করার জন্য কিছু মানুষ এ ধরণের কাজ করে আসছে। যার বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। ভিকটিমকে ধারণা দেয়া হয় এই সুঁই পুতুলের শরীরে ফোটালে শত্রুর শরীরে গিয়ে আঘাত লাগবে। যাকে স্থানীয়ভাবে কালো যাদু কিংবা বান মারা বলা হয়ে থাকে। কিছু মানুষ অর্থ উপার্জনের জন্য এসব করে থাকেন।