ঢাকা ১০:১০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম ::
জমকালো আয়োজনে শ্রীমঙ্গলে অনুষ্ঠিত হলো এসবিএ’র ব্যান্ড ফেস্টিভ্যাল-১০  আগামীকাল ২৫ এপ্রিল বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি সিলেট জেলা শাখার অভিষেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রীর সাথে ঢাকাস্থ ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ দূতাবাসের পদক্ষেপে মিয়ানমারের কারাগার থেকে ফিরছেন ১৭৩ বাংলাদেশি সুনামগঞ্জে ৭ এপিবিএন এর অভিযানে ১টি চোরাই মোটরসাইকেলসহ একজন আটক সদর উপজেলা নির্বাচনে অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিকের নির্বাচনী কার্যালয় উদ্বোধন মেলান্দহে ট্রাক ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে সাত বৎসরের এক শিশু নিহত সিলেটে ডিবি পুলিশের অভিযানে জুয়া খেলার সামগ্রীসহ ১০ জন জুয়ারী গ্রেফতার সিলেটে পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ ১ জন আটক লালাবাজার বিদ্যালয় ও কলেজের ‘রূপকল্প ২০৩০’ প্রণয়নে সুধীজনের মতবিনিময়

উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন সিনিয়র সাংবাদিক গোলজার

আহমদ নাহিদ
  • আপডেট সময় : ১২:৪০:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ মার্চ ২০২৪ ১৪১ বার পড়া হয়েছে
Spread the love

আসন্ন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নিতে চান সিনিয়র সাংবাদিক গোলজার আহমদ হেলাল।

তিনি ডিজিটাল সাংবাদিকতার স্মারক প্রতিষ্ঠান সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এর আগে তিনি ক্লাবের সহ-সভাপতি ও বিভিন্ন সময়ে ভারপ্রাপ্ত সভাপতিরও দায়িত্ব পালন করেছেন।

সাংবাদিক গোলজার স্থানীয় আঞ্চলিক সংবাদপত্র দৈনিক আলোকিত সিলেটের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে তিনি দৈনিক পূণ্যভূমি পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ছিলেন।তিনি ঢাকা থেকে প্রকাশিত নিবন্ধিত অনলাইন গণমাধ্যম বহুমাত্রিক.কম এর স্টাফ করেসপোন্ডেন্ট হিসেবে কর্মরত আছেন। এছাড়াও তিনি জাতীয় দৈনিক বিশ্ব মানচিত্র পত্রিকার সিলেট ব্যুরো প্রধান ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিলেটের খবর টোয়েন্টিফোর ডটকম এর সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে কাজ করছেন। তিনি সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।

সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি উন্নয়ন ও সমাজকর্মী হিসেবে আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন।ছাত্রজীবন থেকেই তিনি নিপীড়িত তৃণমূল সাধারণ জনগোষ্ঠীর মাঝে কাজ করছেন। করোনা, বন্যা, খরা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ সহ সংকটকালে এবং দু:সময়ে ও সুসময়ে সমান্তরালভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।

অরাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন বৃহত্তর জৈন্তিয়া কল্যাণ পরিষদের চেয়ারম্যান, জৈন্তিয়া শিক্ষা উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের প্রথম প্রকল্প পরিচালক, হাজী আস্রব আলী শিক্ষা ও সমাজকল্যাণ ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি, জৈন্তাপুরবাসীর ওয়ার্ল্ড ওয়াইড অনলাইন প্লাটফর্ম আমার জৈন্তাপুর এর প্রধানসহ বিভিন্ন উন্নয়ন ও সেবামুলক সংগঠন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্তসহ তিনি স্থানীয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার সাথে জড়িত আছেন।

সাংবাদিক গোলজার আহমদ হেলাল এর সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, বিভিন্ন কারণে আমি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হতে চাই।তিনি বলেন,নেতৃত্ব একটি স্বাভাবিক মৌলিক প্রক্রিয়া। এর মাধ্যমে জনগণের ইচ্ছা, অভিলাষ, আকাংখা প্রতিফলিত হয়। সমাজের চিত্র পাল্টানো যায়।

তিনি বলেন, নেতৃত্বে সততা,দক্ষতা ও সাহসিকতা খুব বেশি প্রয়োজন। তা না হলে টেকসই সমাজ গড়া সম্ভব নয়। তিনি আরও বলেন, জৈন্তাপুর উপজেলা দেশের একটি প্রাচীন ও প্রান্তিক জনপদ। বিভিন্ন কারণে সিলেট জেলার একটি গুরুত্বপুর্ণ উপজেলা। এক সময় একটি স্বাধীন রাজ্য ছিল এখানে। নান্দনিক ও প্রত্মতাত্মিক সভ্যতায় সমৃদ্ধ অপরূপ সৌন্দর্যের অপার লীলাভূমি জৈন্তাপুর। প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর এ উপজেলা অন্যতম পর্যটন এলাকা হিসেবে বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত। দেশের প্রথম গ্যাসক্ষেত্র এখানেই। এখানে এখনো নেই কোন পৌরসভা। নেই ভালো মানের কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এখানের বালু, পাথর দিয়ে সারা দেশ গড়া হচ্ছে। অথচ যোগাযোগ ব্যবস্থার কাংখিত উন্নয়ন হয়নি। এখনো অনেক রাস্তাঘাট জরাজীর্ণ, বেহাল দশা।

তিনি বলেন, নগরায়নের এ যুগে গ্রাম হবে শহর শ্লোগান নয় কাজে পরিণত করতে হবে। অনাবাদী জমিকে আবাদযোগ্য করতে হবে। কৃষিকে আধুনিকায়ন করতে হবে। সামন্তবাদী ধ্যান ধারণা কে পেছনে ফেলে দিতে হবে। এককালের পুরনো সেই সোনালী জনপদ আজো পিছিয়ে।বলা যায় অবহেলিত এক জনপদ।সরকারী অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত এতদঞ্চলের মানুষ। আজ সময়ের দাবী টেকসই সামাজিক উন্নয়ন। প্রয়োজন নাগরিকদের জীবন মান উন্নয়নে ব্যাপক কর্মসুচী গ্রহণ। তিনি বলেন, আমি বৃহত্তর জৈন্তার সবচেয়ে ভালো মানের স্কুল সেন্ট্রেল জৈন্তা দ্বি-পাক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয় এর ফার্স্ট বয় ছিলাম।ভালো ঈর্ষণীয় ফলাফল নিয়ে এ স্কুল থেকে বেরিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রী অর্জন করেছি।আমার এ অর্জনের পেছনে এলাকার মানুষের অবদান আছে। আমি সেই দায় শোধ করতে চাই। যেহেতু আমি সরকারী চাকরি করছি না। তাই জনপ্রতিনিধি হয়ে জনগণের খেদমতে নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই।

একটি মডেল উপজেলা গড়ার স্বপ্নচারী গোলজার আহমদ হেলাল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে সকল মহলের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে উপজেলাবাসীর পরিকল্পিত উন্নয়নে নিজেকে নিয়োজিত রাখবেন বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, উপজেলা পরিষদ হবে সকলের। কোন ব্যক্তি বা দলের নয়। তিনি আলোকিত সোনার জৈন্তা বিনির্মাণে অঙ্গীকারাবদ্ধ হয়ে কাজ করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য

উপজেলা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন সিনিয়র সাংবাদিক গোলজার

আপডেট সময় : ১২:৪০:১১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৬ মার্চ ২০২৪
Spread the love

আসন্ন জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ নিতে চান সিনিয়র সাংবাদিক গোলজার আহমদ হেলাল।

তিনি ডিজিটাল সাংবাদিকতার স্মারক প্রতিষ্ঠান সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এর আগে তিনি ক্লাবের সহ-সভাপতি ও বিভিন্ন সময়ে ভারপ্রাপ্ত সভাপতিরও দায়িত্ব পালন করেছেন।

সাংবাদিক গোলজার স্থানীয় আঞ্চলিক সংবাদপত্র দৈনিক আলোকিত সিলেটের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে তিনি দৈনিক পূণ্যভূমি পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ছিলেন।তিনি ঢাকা থেকে প্রকাশিত নিবন্ধিত অনলাইন গণমাধ্যম বহুমাত্রিক.কম এর স্টাফ করেসপোন্ডেন্ট হিসেবে কর্মরত আছেন। এছাড়াও তিনি জাতীয় দৈনিক বিশ্ব মানচিত্র পত্রিকার সিলেট ব্যুরো প্রধান ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিলেটের খবর টোয়েন্টিফোর ডটকম এর সম্পাদক ও প্রকাশক হিসেবে কাজ করছেন। তিনি সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।

সাংবাদিকতার পাশাপাশি তিনি উন্নয়ন ও সমাজকর্মী হিসেবে আর্থ সামাজিক উন্নয়নে ভূমিকা রাখছেন।ছাত্রজীবন থেকেই তিনি নিপীড়িত তৃণমূল সাধারণ জনগোষ্ঠীর মাঝে কাজ করছেন। করোনা, বন্যা, খরা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ সহ সংকটকালে এবং দু:সময়ে ও সুসময়ে সমান্তরালভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি।

অরাজনৈতিক সামাজিক সংগঠন বৃহত্তর জৈন্তিয়া কল্যাণ পরিষদের চেয়ারম্যান, জৈন্তিয়া শিক্ষা উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের প্রথম প্রকল্প পরিচালক, হাজী আস্রব আলী শিক্ষা ও সমাজকল্যাণ ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি, জৈন্তাপুরবাসীর ওয়ার্ল্ড ওয়াইড অনলাইন প্লাটফর্ম আমার জৈন্তাপুর এর প্রধানসহ বিভিন্ন উন্নয়ন ও সেবামুলক সংগঠন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে সম্পৃক্তসহ তিনি স্থানীয়, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার সাথে জড়িত আছেন।

সাংবাদিক গোলজার আহমদ হেলাল এর সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, বিভিন্ন কারণে আমি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হতে চাই।তিনি বলেন,নেতৃত্ব একটি স্বাভাবিক মৌলিক প্রক্রিয়া। এর মাধ্যমে জনগণের ইচ্ছা, অভিলাষ, আকাংখা প্রতিফলিত হয়। সমাজের চিত্র পাল্টানো যায়।

তিনি বলেন, নেতৃত্বে সততা,দক্ষতা ও সাহসিকতা খুব বেশি প্রয়োজন। তা না হলে টেকসই সমাজ গড়া সম্ভব নয়। তিনি আরও বলেন, জৈন্তাপুর উপজেলা দেশের একটি প্রাচীন ও প্রান্তিক জনপদ। বিভিন্ন কারণে সিলেট জেলার একটি গুরুত্বপুর্ণ উপজেলা। এক সময় একটি স্বাধীন রাজ্য ছিল এখানে। নান্দনিক ও প্রত্মতাত্মিক সভ্যতায় সমৃদ্ধ অপরূপ সৌন্দর্যের অপার লীলাভূমি জৈন্তাপুর। প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর এ উপজেলা অন্যতম পর্যটন এলাকা হিসেবে বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত। দেশের প্রথম গ্যাসক্ষেত্র এখানেই। এখানে এখনো নেই কোন পৌরসভা। নেই ভালো মানের কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এখানের বালু, পাথর দিয়ে সারা দেশ গড়া হচ্ছে। অথচ যোগাযোগ ব্যবস্থার কাংখিত উন্নয়ন হয়নি। এখনো অনেক রাস্তাঘাট জরাজীর্ণ, বেহাল দশা।

তিনি বলেন, নগরায়নের এ যুগে গ্রাম হবে শহর শ্লোগান নয় কাজে পরিণত করতে হবে। অনাবাদী জমিকে আবাদযোগ্য করতে হবে। কৃষিকে আধুনিকায়ন করতে হবে। সামন্তবাদী ধ্যান ধারণা কে পেছনে ফেলে দিতে হবে। এককালের পুরনো সেই সোনালী জনপদ আজো পিছিয়ে।বলা যায় অবহেলিত এক জনপদ।সরকারী অনেক সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত এতদঞ্চলের মানুষ। আজ সময়ের দাবী টেকসই সামাজিক উন্নয়ন। প্রয়োজন নাগরিকদের জীবন মান উন্নয়নে ব্যাপক কর্মসুচী গ্রহণ। তিনি বলেন, আমি বৃহত্তর জৈন্তার সবচেয়ে ভালো মানের স্কুল সেন্ট্রেল জৈন্তা দ্বি-পাক্ষিক উচ্চ বিদ্যালয় এর ফার্স্ট বয় ছিলাম।ভালো ঈর্ষণীয় ফলাফল নিয়ে এ স্কুল থেকে বেরিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রী অর্জন করেছি।আমার এ অর্জনের পেছনে এলাকার মানুষের অবদান আছে। আমি সেই দায় শোধ করতে চাই। যেহেতু আমি সরকারী চাকরি করছি না। তাই জনপ্রতিনিধি হয়ে জনগণের খেদমতে নিজেকে বিলিয়ে দিতে চাই।

একটি মডেল উপজেলা গড়ার স্বপ্নচারী গোলজার আহমদ হেলাল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে সকল মহলের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে উপজেলাবাসীর পরিকল্পিত উন্নয়নে নিজেকে নিয়োজিত রাখবেন বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, উপজেলা পরিষদ হবে সকলের। কোন ব্যক্তি বা দলের নয়। তিনি আলোকিত সোনার জৈন্তা বিনির্মাণে অঙ্গীকারাবদ্ধ হয়ে কাজ করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।