No icon

সিলেট

আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে মঙ্গোলিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশের ফুটবল দলের ড্র 

 


স্পোর্টস ডেস্কঃ

দুই বছর পর আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে মঙ্গোলিয়ার মুখোমুখি জামাল ভূঁইয়ার দল। ফিফার র‍্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে দুই ধাপ এগিয়ে থাকা মঙ্গোলিয়ার ওপর আধিপত্য দেখালেও শেষ পর্যন্ত গোলশূন্য ড্র'তেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে বাংলাদেশকে।

নতুন কোচ হ্যাভিয়ের কাবরেরার অধীনে দেশের মাটিতে এটিই ছিল বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে নতুন কোচের অধীনে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছে বাংলাদেশ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দেখা মেলেনি কাঙ্ক্ষিত গোলের। এর আগে গত ২৪ মার্চ মালদ্বীপের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে হেরেছিল বাংলাদেশ।

মালদ্বীপের বিপক্ষের ম্যাচের থেকে এই ম্যাচে একাদশে দুটি পরিবর্তন আনেন কাবরেরা। ৪-১-৪-১ ফরমেশনে দল সাজিয়ে একাদশ থেকে বিশ্বনাথ ঘোষ ও বিপলু আহমেদকে বাইরে রেখে জায়গা দেন রিমন হোসেন ও আতিকুর রহমান ফাহাদকে।

স্বাগতিকদের সামনে সুযোগ আসে ম্যাচের মাত্র দুই মিনিটের সময়ই। বাঁ দিক থেকে ইব্রাহিমের পাস ধরে বল নিয়ে আক্রমণে যান উইঙ্গার রাকিব হোসেন। এরপর ভালো অবস্থানে গিয়ে ক্রস করেন গোলমুখে কিন্তু তার ক্রস গ্লাভস বন্দি করার চেষ্টা করেন মঙ্গোলিয়ার গোলরক্ষজক। তবে বল পুরোপুরি আয়ত্তে আনতে পারেননি তিনি আর তাতেই বল পেয়ে যান সুমন রেজা। কিন্তু এমন সুযোগেও বলে পা ছোঁয়াতে পারেননি সুমন।

এরপর ম্যাচের ১০ মিনিটের সময় প্রথম কর্নার পায় বাংলাদেশ। জামালের কর্নার লাফিয়ে উঠেও হেড করতে পারেননি ইয়াসিন আরাফাত। পাঁচ মিনিট পর দুই জনকে কাটিয়ে ইয়াসিন নিখুঁত থ্রু পাস বাড়ান বক্সে। অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে বক্সে ঢুকে ভারসাম্য হারিয়ে পড়ে গিয়ে সুযোগ নষ্ট করেন ইব্রাহিম। ৪১ মিনিটে সুবর্ণ সুযোগটি নষ্ট হয়। সোহেল রানা পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বক্সের উপর থেকে শরীর ঘুরিয়ে শট নেন সুমন। বল গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে ক্রসবার কাঁপিয়ে ফিরে।

প্রথমার্ধেই সুযোগ হাতছাড়া করার মাশুল দিয়েছেন জামাল ভুঁইয়ারা। প্রথমার্ধ শেষের ঠিক আগে সুমন রেজার দুর্দান্ত এক শট গোলবারে লেগে প্রতিহত হলে হতাশ হয় স্বাগতিক শিবির। উইং দিয়ে রাকিব হোসেন দুর্দান্ত গতিতে বল নিয়ে আক্রমণ করতে থাকেন মঙ্গোলিয়ার রক্ষণে। বেশ কয়েকবার বল নিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে দুর্দান্ত পাসও দিয়েছেন তিনি কিন্তু সতীর্থদের ব্যর্থতায় তার পাসগুলো বৃথা যায়।

দ্বিতীয়ার্ধেও দুর্দান্ত আক্রমণ করে বাংলাদেশ। শেষ দিকে এসে জামালের কর্নারে ইয়াসিনের হেডে সুমনের বা পায়ের জোরালো ভলি ক্রস বারের ওপর দিয়ে গেলে এই অর্ধে আর এগিয়ে যাওয়া হয়নি। বিপরীতে মঙ্গোলিয়া একবারের জন্য স্বাগতিকদের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকোর পরীক্ষা নিতে পারেনি।

Comment As:

Comment (0)