No icon

নড়াইলে শিশুকন্যার শোকে মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা 

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধি■

নড়াইলে শিশু সন্তান মিমকে মায়ের নিকট থেকে স্বামী নড়াইলের কালিয়া উপজেলার বাবরা ইউনিয়নের শুক্তগ্রাম বাজার থেকে জোর করে ছিনিয়ে নেয়ার খবর পাওয়া গেছে। 

এর শোক সামলাতে না পেরে মা কুলসুম বেগম তিনদিনপর গত মঙ্গলবার (২০আগষ্ট) সকালে পিত্রালয়ে কীটনাষক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। সে নড়াইলের কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ক্সের বেডে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। তার চিকিৎসা চলছে। 

নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায় জানান, পারিবারিক ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, নড়াইল জেলার কালিয়া উপজেলার মাওলী গ্রামের সরোয়ার শেখের ছেলে ফরহাদ শেখকে ভালবেসে একই উপজেলার পাটকেল বাড়ি গ্রামের বাচ্চু মোল্যার মেয়ে কুলসুম (২০) আড়াই বছর পূর্বে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। ছয় মাস পূর্বে কুলসুম বেগমের কোল আলো করে মিমের জন্ম হয়। মিমের বয়স দুই মাস হতে না হতেই ফরহাদ শেখ আবার একটি বিয়ে করে। 

এ বিষয়টি নড়াইলের কালিয়া উপজেলার বাবরা ইউনিয়নের শুক্তগ্রাম বাজারে শনিবার (১৭আগষ্ট) দুপুরে বসে বিষয়টি মিমাংসা হয়। খোলা তালাকের মাধ্যমে বিয়ে বিচ্ছেদ হয়। এরপর কুলসুমের সাবেক স্বামী ফরহাদ শেখ কুলসুম বেগমের নিকট থেকে শিশু কন্যা মিমকে জোর করে ছিনায় নেয়। অনেক চেষ্টার পর কন্যাকে ফিরে না পাওয়ায় কুলসুম কন্যার শোকে ভারসাম্যহীন হয়ে মঙ্গলবার (২০আগষ্ট) সকালে পিত্রালয়ের ঘরে থাকা কীটনাষক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে ওইদিন সকাল পৌনে আটটায় নড়াইলের কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপে­ক্সে ভর্তি করে। 

Comment As:

Comment (0)